নিখোঁজ বগুড়ার রহিম দুই বছর পর মানিকছড়ির পুলিশের সহযোগিতায় ফিরে গেল স্বজনদের কাছে


নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

দুই বছর আগে বগুড়ার সান্তাহার রেল স্টেশন থেকে হারিয়ে যাওয়া শিশু আব্দুর রহিম ওরফে শরীফুল ইসলাম(৮) পুলিশের সহযোগিতায় পরিবারের কাছে ফিরে গেল।

তাকে শুক্রবার(২৯জুন) দুপুরে পরিবারের হাতে হস্তান্তর করা হয়। আব্দুল রহিম বগুড়া জেলার আদমদীঘি থানার বাসিন্দা রমজান আলীর ছেলে। দীর্ঘ দুই বছর পর হারিয়ে যাওয়া ছেলেকে ফিরে পেয়ে খুশির বন্যা বইছে রহিমের পরিবারে।

মানিকছড়ি থানার এসআই আব্দুল্লাহ আল মাসুদ জানান, গত ২৬ জুন মানিকছড়ি উপজেলার বড় ডুলু এলাকায় রহিমকে নামিয়ে দেয়। এ সময় শিশুটির কান্না দেখে বাবুল চৌধুরী নামে জনৈক ব্যক্তি রহিমকে মানিকছড়ি এনে দেয়। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শিশুটি শুধু নিজের নাম ও বাবা সান্তাহারে চুল কাটে বলতে পারতো। তথ্য প্রযুক্তির  মাধ্যমে বগুড়ার আদমদীঘি থানাকে তার বার্তার মাধ্যমে জানানো হয়। আলমদীঘি থানা পুলিশ সান্তাহার রেল স্টেশন এলাকায় খোঁজ করে আব্দুর রহিমের বাবা রমজান আলীর সন্ধ্যান পায়। শুক্রবার সকালে শরিফা বেগম মানিকছড়ি থানায় তার ছেলে আব্দুর রহিমকে সনাক্ত করে। এ সময় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়।

শরিফা বেগম তার ছেলে দুই বছর আগে হারিয়ে গেলেও কিভাবে খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতে এসে পৌঁছলো তা জানাতে পারেনি। তিনি পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, দুই বছর ধরে বহু খুঁজেছি ছেলেকে, না পেয়ে আশা ছেড়ে দিয়েছিলাম।

One thought on “নিখোঁজ বগুড়ার রহিম দুই বছর পর মানিকছড়ির পুলিশের সহযোগিতায় ফিরে গেল স্বজনদের কাছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *