চঞ্চুমনি চাকমার উপর হামলা ও নারী ধর্ষণের প্রতিবাদে মানিকছড়িতে বিক্ষোভ


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

গত ১৩ জুলাই খাগড়াছড়ি জেলা সদর প্রেস ক্লাবের সামনে উপজেলা চেয়ারম্যান চঞ্চুমনি চাকমার উপর সন্ত্রাসীদের হামলা, কাউখালী-খাগড়াছড়িতে পাহাড়ি নারী ধর্ষণের প্রতিবাদে এবং এসব ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানিকছড়ি সদরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি), গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম (ডিওয়াইএফ), হিল উইমেন্স ফেডারেশন (এইচডব্লিউএফ) ও নির্বাচিত জুম্ম জনপ্রতিনিধি।

সোমবার (২৩ জুলাই) দুপুর ১২টায় প্রবল ঝড় বৃষ্টি উপেক্ষা করে এই বিক্ষোভ মিছিল করে পিসিবি-ডিওয়াইএফ-এইচডব্লিউএফ’র নেতা কর্মীরা।

এসময় মিছিলটি মানিকছড়ি সদর ধর্মঘট থেকে শুরু করে কলেজিয়েট স্কুলের সামনে যেতে চাইলে মানিকছড়ি গিরী মৈত্রী কলেজ গেইটের সামনে সেনাবাহিনী ও পুলিশের বাধার মুখে পড়ে। পরে সেখান থেকে ফিরে আবার একই স্থানে এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, বর্তমান সময়ে দেশের জনগণ কেউ নিরাপদ নয়। জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে সাধারণ জনগণ যারা সরকার শাসকগোষ্ঠীর অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে, তাদের অনৈতিক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে যারা কথা বলে, তাদেরকে খুন-গুম-অপহরণ-হত্যা, মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে আটক ও নানানভাবে হয়রানি করছে। শাসকগোষ্ঠীর নিপীড়নের জায়গা থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী ধর্ষণের ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটে চলেছে। এছাড়া নারী ধর্ষণের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক কোন শাস্তি না হওয়ার কারণে দেশে অহরহ ধর্ষণ-হত্যার ঘটনা ঘটাতে সাহস পাচ্ছে।

বক্তারা আরও বলেন, ফ্যাসিস্ট সরকার তার পেটোয়া বাহিনীদের ব্যবহার করে জনগণের প্রতিবাদী কন্ঠকে রুদ্ধ করে রাখতে নানান ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী ছাত্রদের উপর বর্বর হামলা, পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে খর্ব করে মিছিল মিটিং-এ বাধা ও আজকের মিছিলে সেনা-প্রশাসনের বাধা প্রদানের ঘটনা তাই প্রমাণ করে।

সমাবেশ থেকে বক্তারা, চঞ্চুমনি চাকমার উপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার, পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারাদেশের নারী নির্যাতন-ধর্ষণ-খুন-গুম-অপহরণ বন্ধ, সভা-সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা বাতিল ও সারাদেশের জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি জানান।

এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তপন চাকমা, ডিওয়াইএফ জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রুপেশ চাকমা, ১নং লক্ষীছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান প্রবীল চাকমা, ২নং দুল্যাতলী ইউপি চেয়ারম্যান ত্রিলন চাকমা প্রমূখ।

এসময় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক অবনিকা চাকমা, লক্ষীছড়ি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বেবী রানী বসু ও ৩ নং বর্মাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান হরি মোহন চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *