নানিয়ারচরের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যানকে অপহরণ


নিজস্ব প্রতিনিধি, রাঙামাটি :

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান প্রীতিময় চাকমাকে  করেছে একদল দুর্বত্ত। ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) রাঙামাটি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক শান্তিদেব চাকমা শুক্রবার (২০জুলাই) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানান।

সংগঠনটির প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপিÍর মাধ্যমে আরও জানানো হয়- বৃহস্পতিবার ১৯জুলাই রাতে উপজেলার সাবেক্ষ্যং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পাড়ার নিজ বাড়ি থেকে প্রীতিময়কে অপহরণ করা হয়। এরপর সন্ত্রাসীদের আস্তানা মহালছড়ির মুবাছড়ির দিকে ইঞ্জিন চালিত বোটে করে নিয়ে যায়। এ ঘটনার জন্য সংগঠনটি জেএসএস সংস্কারকে দায়ী করেছে।

বিষয়য়টি নিশ্চিত করে ইউপিডিএফ’র প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং অবিলম্বে চেয়ারম্যানকে উদ্ধারে তড়িৎ ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।

এদিকে ইউপিডিএফের এ দাবী অস্বীকার করেছে জেএসএস সংস্কারের একটি সূত্র। এঘটনাকে তারা ইউপিডিএফের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের ফসল বলে জানিয়েছে।

আগামী ২৫ জুলাই এই উপজেলায় উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেএসএস সংস্কারের ভাইস প্রেসিডেন্ট শক্তিমান চাকমাকে নিজ কার্যালয়ের সামনে গত ৩ মে গুলি করে হত্যা করায় তার পদে উপনির্বাচন ঘোষণা করা হয়। জেএসএস সংস্কার এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ইউপিডিএফকে দায়ী করে আসছে। প্রীতিময় চাকমা অপহরণের সাথে এই নির্বাচনের সম্পর্ক আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য নানিয়ারচর থানার ওসির সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সংযোগ পাওয়া যায়নি।

রাঙামাটি পুলিশ সুপার (এসপি) আলমগীর কবির জানান, এ ব্যাপারে আমাদের কেউ অভিযোগ করেনি, অভিযোগ দায়ের করলে অপরাধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *