নানিয়াচরে উপজাতি সন্ত্রাসীদের হানায় বাঙালীদের ৮২ হাজার আনারস গাছ ধ্বংস


3636

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাঙামাটি জেলার নানিয়ারচর উপজেলায় বাঙালীদের ২ একর আনারস বাগান কেটে ধ্বংস করে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। শনিবার মধ্যরাতে নানিয়ারচর উপজেলার ৩ নং বুড়িঘাট মধ্যমপুলি পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ বাগানে প্রায় ৮২ হাজার আনারস গাছ ছিল বলে দাবি করে ক্ষতিগ্রস্থ বাগান মালিক মো. জামাল সিকদার  ও মধুমিয়া। এ ঘটনায় বর্তমানে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পার্বত্য সমঅধিকার আন্দোলনের উপজেলা নেতা মো. কবির হোসেন জানান, নানিয়ারচর উপজেলার ৩ নং বুড়িঘাট মধ্যমপুলি পাড়ায় উথুই মং মারমা ও অংসুই প্রু মারমার নেতৃত্বে একদল উপজাতি মধ্যরাতে জামাল সিকদার  ও মধু মিয়ার আনারস বাগানে হানা দেয়। এসময় তারা ২ একর বাগানের সব ছোট বড় আনারস একচেটিয়া কেটে ধ্বংস করে দেয়। বাগানে প্রায় ৮২ হাজার আনারস গাছ ছিল। তবে কি কারণে তারা হঠাৎ সুবিধা বঞ্চিত গরীব বাঙালীদের বাগান কেটে ধ্বংস করে দিয়েছে, সে বিষয়ে সঠিক কোন তথ্য জানা যায় নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে এটা সম্প্রদায়িক প্রতিহিংসার ইস্যু হতে পারে।


এ সংক্রান্ত আরো খবর পড়ুন:

  1. রাঙামাটির নানিয়ারচরে পাহাড়ি-বাঙালী সংঘর্ষ: সেগুন আনারস বাগান কর্তন দোকানসহ ১৩টি ঘরে অগ্নিসংযোগ
  2. ২৩ দিনের মাথায় আবারো বাঙালীদের প্রায় ২ লক্ষ আনারস গাছ ও ১০ হাজার গাছ ধংস করে দিয়েছে উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা
  3. নানিয়ারচরে আবারো আনারস কেটে নিলো পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা
  4. বাঙ্গালীদের আনারস ও সেগুন বাগান কেটে ফেলার জের ধরে উত্তপ্ত নানিয়ারচর
  5. নানিয়ারচরে আনারস ও সেগুন বাগান ধংস: বাঙ্গালীদের অভিযোগ ২০০৮ সাল থেকে ভুমিহীন করার কৌশল !
  6. নানিয়ারচর থেকে বাঙ্গালীদের উৎখাত করতেই তৃতীয় পক্ষের ইন্ধনে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে
  7. দিনে পুলিশী গ্রেফতার ও রাতে পাহাড়ী সন্ত্রাসীদের হামলার আতঙ্কে দিন কাটে নানিয়ারচরের বাঙালীদের
  8. নানিয়ারচরে বাঙালীদের আনারস ও সেগুন বাগান ধংসে স্থানীয় উপজাতি নেতৃবৃন্দ জড়িত- সরকারী তদন্ত কমিটির রিপোর্ট
  9. নানিয়ারচরে বাঙালীদের আনারস বাগান কেটেছে ইউপিডিএফ অভিযোগ জেএসএসের
  10. নানিয়ারচরের ইউএনও নুরুজ্জামানকে আবারো প্রাণনাশের হুমকি: দু’কোটি টাকা চাঁদা দাবি

ক্ষতিগ্রস্ত আনারস বাগান মালিক মো. জামাল সিকদার  ও মধুমিয়া অভিযোগ করে বলেন, ৩ বছরের জন্য এ জমি লীজ নিয়ে আনারস বাগান চাষ করে তারা। তাই জমি নিয়ে কারো সাথে দ্বন্দ্ব ছিল না। এ বাগানে প্রায় ৮২ হাজার চারাগাছ তারা রোপন করেছিল। আর কিছু দিন পর পুরো বাগান জুড়ে আনারসের ফলে ভরে যেত। কিছু কিছু গাছে ফলনও এসেছে। কিন্তু দূর্বৃত্তরা এতো কষ্টের বাগান নষ্ট করে দিয়েছে। সব হারিয়ে এখন তারা প্রায় নিঃস্ব হয়ে গেছে। তারা প্রশাসনের কাছে এ বিচার ও ক্ষতিপূরণ দাবি করে।

এ বিষয়ে নানিয়ারচর উপজেলা থানায় মো. জামাল সিকদার  ও মধুমিয়া বাদি হয়ে স্থানীয় উথুই মং মারমা ও অংসুই প্রু মারমাকে আসামী করে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে বেশ কয়েকজনের অজ্ঞাতনামা মামলা করার প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান তারা।

এদিকে নানিয়াচরে দূর্বৃত্তরা বাঙালীদের ২ একর আনারস বাগান কেটে ধ্বংস করার প্রতিবাদে রাঙামাটি শহরে ও উপজেলায় তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে স্থানীয় বাঙালী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এ ব্যাপারে রাঙামাটি জেলা পুলিশ সুপার মো. সাঈদ তারিকুল হাসান জানান, খবর পেয়ে আমরা তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরির্দশ করেছি। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের সহায়তা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে। ২০১৪ সালে এভাবে আনারস বাগান ধ্বংস করে কিছু দুষ্কৃতিকারী সাম্প্রদায়িক ইস্যূ তৈরি করে ছিল। এবার যাতে এ ধরণের কোন ঘটনা না ঘটে সে বিষয়ে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে একই ভাবে উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় স্থানীয় বাঙালীদের বেশ কয়েকবার আনারস বাগান কেটে ধ্বংস করে দেয়। এ ঘটনায় এলাকায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাও সৃষ্টি হয়।

 

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *