নাইক্ষ্যংছড়ির মিয়ানমার সীমান্তে গুলিবিদ্ধ হাতি


লামা প্রতিনিধি:

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার আশারতলী মিয়ানমার সীমান্তের ৪৬নং পিলার সংলগ্ন এলাকায় একটি বন্যহাতি গুলিবিদ্ধ হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে। সামনের বাম পায়ে গুলিবিদ্ধ হওয়ায় চলাফেরা করতে পারছে না। হাতিটিকে চিকিৎসা প্রদান করে সুস্থ করার জন্য লামা বন বিভাগ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কের চিকিৎসক টিম কাজ করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদর হতে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার পূর্ব দক্ষিণে গত ১১ আগস্ট অসুস্থ হাতিটিকে স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে বন বিভাগে খবর দেয়। বন বিভাগের একটি টিম সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখতে পান প্রায় ২০ থেকে ২৫ দিন পূর্বে হাতিটি গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুলিবিদ্ধ অংশের বাম পায়ের চামড়া পঁচন ধরেছে। কিভাবে গুলিবিদ্ধ হয়েছে তা কেউ জানাতে পারে নি। হাতিটি চলাফেরা করতে না পারায় শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। ধারণা করা হচ্ছে হাতিটি মিয়ানমারে গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

নাইক্ষ্যংছড়ি রেঞ্জের ফরেস্টার নুর এ আলম হাফিজ জানান, আহত হাতিটিকে সুস্থ করার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কের রেঞ্জ অফিসার কেএম মোর্শেদুল আলম জানান, হাতিটি গুলিবিদ্ধ হয়ে চরমভাবে আহত হয়েছে। ভ্যাটেরেনারী সার্জনের সমন্বয়ে গঠিত চিকিৎসক টিম দিয়ে হাতিটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসা প্রদানের সময় ট্যাঙ্কুলাইজারের মাধ্যমে হাতিটিকে অজ্ঞান করা হয়েছিল।

লামা বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, আহত হাতিটির সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে চিকিৎসা প্রদান করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে হাতিটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *