নাইক্ষ্যংছড়িতে পাহাড়ের শীর্ষ সন্ত্রাসী আনাইয়্যার পুলিশ কর্মকর্তাকে সরাতে আল্টিমেটাম


বাইশারী প্রতিনিধি:

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির পাহাড়ে অপহরণ-ডাকাতির শীর্ষ সন্ত্রাসী আনাইয়্যা বাহিনীর প্রধান আনোয়ার হোসেন (প্রকাশ আনাইয়্যা) এবার নতুন করে পুলিশ কর্মকর্তাকে সরাতে আল্টিমেটাম দিয়েছে।

সোমবার (২৭আগস্ট) সকালে উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের আলীক্ষ্যং মাল্টাবাগান এলাকায় ৪০-৫০জন শ্রমিকদের গতিরোধ করে এই হুমকি দেন আনাইয়্যা।

রাবার শ্রমিকদের কাজে না যেতে পুনরায় হুমকি ছাড়াও পুলিশের এসআই আবু মুসাকে সরিয়ে নিতে আল্টিমেটাম প্রদান করেছে শীর্ষ সন্ত্রাসী আনাইয়্যা। প্রসঙ্গত, এসআই আবু মুসা বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে কর্মরত অবস্থায় গত দুই বছরে বিভিন্ন সময়ে অভিযান চালিয়ে তার বাহিনীর ৯ সদস্যকে গ্রেফতারের মাধ্যমে বাহিনী ছত্রভঙ্গ ছাড়াও একাধিকবার দূর্গম পাহাড়ের অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছেন। এর আগে গত ৬আগস্ট একই স্থানে রাবার শ্রমিকদের একত্রিত করে ওই এলাকার রাবার বাগানে পরদিন থেকে কাজ না করতে বারন করেছিল শীর্ষ এই সন্ত্রাসী। এর পর প্রশাসনে কিছুটা টনক নড়ে। আনাইয়্যাকে ধরতে পুলিশের অভিযান ও টহল জোরদার করা হয়।

২৭ আগস্ট সোমবার রাবার বাগান থেকে ফিরে আসা চিত্রনায়ক সোহেল রানার মালিকানাধীন রাবার বাগানের শ্রমিক নুরুল আমিন, রেজা খান, হামিদ কোম্পানীর ম্যানেজার আবদুল মালেক, সুপারভাইজার মো: শফি এই প্রতিবেদককে বলেন- ‘ইতোপূর্বে আনাইয়্যা কাজে যেতে নিষেধ করেছিল। কিন্তু এবার পুলিশের এসআই আবু মুসাকে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থেকে সরিয়ে নিতে প্রকাশ্যে হুমকি দেয় সে। এসময় আনাইয়্যা সহ অস্ত্রধারী তিনজন ছাড়াও আশপাশের জঙ্গলে আরো সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছিল বলে জানান তারা।

আনাইয়্যার হুমকির বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইন্সপেক্টর একেএম হাবিবুল ইসলাম জানান, ‘সন্ত্রাসীর কথায় আইন শৃংখলা বাহিনী চলেনা। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

অপরদিকে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আলমগীর শেখ বলেন, সন্ত্রাসী আনাইয়্যার বিষয়টি গভীরভাবে দেখা হচ্ছে। এই বিষয়ে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাবেন।

এদিকে সন্ত্রাসী আনাইয়্যাকর্তৃক এবার পুলিশ কর্মকর্তাকে সরানোর হুমকির বিষয়টি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় আইন শৃংখলা বাহিনী বিষয়টি নিয়ে কৌশলে এগুচ্ছে।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক মহলের মতে, প্রশাসনকে বিভ্রান্ত করে অভিজ্ঞ পুলিশ সদস্যদের সরাতে পারলে আনাইয়্যা ধরা ছোঁয়া বাইরে থেকে আরো নির্বিঘ্নে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাতে পারবে।

বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আলম কোম্পানী এই প্রতিবেদককে বলেন, বাইশারীর ভৌগোলিকগত কারণে আনাইয়্যাকে ধরতে সাময়িক বিলম্ব হলেও, প্রশাসন-জনতা এই সন্ত্রাসীকে নিধন করবেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *