দেশের সবচেয়ে লম্বা মানুষের পর খাটো মানুষকেও পাওয়া গেল রামুর গর্জনিয়ায়


বাইশারী প্রতিনিধি:

দেশের সবচেয়ে লম্বা মানুষের পর খাটো মানুষেরও সন্ধান পাওয়া গেছে রামু উপজেলার গর্জনীয়ায়। ৫০ বছর বয়সী জাকের হোছন নামে এই ব্যক্তির উচ্চতা মাত্র ২ ফুট ১০ ইঞ্চি। ২০ বছরের অধিক সময় ধরে স্ত্রী হাজেরা বেগমের সাথে বিবাহিত জীবন পার করছে সুখেই। কিন্তু এখনো সন্তানের দেখা পায়নি তাঁরা। সে কক্সবাজার জেলার রামুর গর্জনিয়া ইউনিয়নের শাহ মোহাম্মদপাড়া গ্রামের মৃত বাঁচা মিয়ার পুত্র।

জাকের হোছন বলেন, ‘উচ্চতা কম হওয়ায় সব কাজ করা যায়না। সংসার চালাতে অনেক কষ্ট হয়। পাহাড় থেকে লাকড়ি সংগ্রহ করে বাজারে এসব বিক্রি করে অল্প টাকা আয়ে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হয়।

স্ত্রী হাজেরা খাতুন বলেন, ‘খাটো স্বামীকে নিয়ে কোন দুঃখ নেই, আমি সুখেই আছি। তবে সন্তান না হওয়া নিয়ে মনে একটু কষ্ট আছে। রাস্তার কাজ করে আমি প্রতিমাসে সাড়ে ৪ হাজার টাকা আয় করি আর স্বামী প্রতিবন্ধী ভাতা হিসাবে সরকার থেকে ছয় মাস অন্তর অন্তর ৩ হাজার ৬০০ টাকা পায়।

স্থানীয় বাসিন্দা ও  আওয়ামীলীগ নেতা আয়ুব শিকদার বলেন, আমার মতে জাকের হোছন দেশের সবচেয়ে খাটো মানুষের মধ্যে একজন হতে পারে। তাঁর মতো খাটো আমি আর দেখিনি। তাকে নিয়ে এলাকায় অনেক কৌতুহল রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *