দেশের সঙ্গে সঙ্গে সৌন্দয়ের রানী খাগড়াছড়িও এগিয়ে যাচ্ছে: জেলা প্রশাসক


গুইমারা প্রতিনিধি:

সকলকে সঙ্গে নিয়ে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, সেই সাথে সৌন্দর্য্যের রানী হিসেবে আমাদের খাগড়াছড়িও এগিয়ে যাচ্ছে। গুইমারার হাফছড়ি ইউপি হলরুমে স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক রাশেদুল ইসলাম।

বুধবার (২৩ মে) বেলা ১১টায় হাফছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চাইথোয়াই চৌধুরীর সভাপতিত্বে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, কার্বারী, কৃষকসহ সর্বস্তরের মানুষকে নিয়ে উন্মুক্ত মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

এ সময়ে প্রধান অতিথি হিসেবে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক রাশেদুল ইসলাম বিশেষ অতিথি হিসেবে গুইমারা উপজেলা র্নিবাহী র্কমর্কতা পঙ্কজ বড়ুয়া, গুইমারা থানা অফিসার ইনচার্জ মো. গিয়াসউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও গুইমারা জালিয়াপাড়ার জনপ্রতিনিধি, স্কুল শিক্ষক, কৃষি অফিসার, পাড়া কার্বারীসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। এ সময়ে উপস্থিত আমচাষীরা জালিয়াপাড়ায় আমের বাজারে একটি হিমাগারের এবং সম্ভাব্য সময়ে ভূমি অফিস স্থাপন, মাদক নির্মূলসহ বেশ কয়েকটি বিষয়ে জোরালো আবেদন করেন।

প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক রাশেদুল ইসলাম বলেন, সকল স্তরের মানুষকে নিয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, দেশের সাথে সাথে আমরা খাগড়াছড়িকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। খাগড়াছড়ির উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, পাহাড়ের মানুষ এখন আর পিছিয়ে নেই। সুস্বাদু রুপালি আম, পর্যটন স্পট, হলুদ সহ অনেক বিষয়ে ইতিমধ্যে আমাদের খাগড়াছড়ি সুনাম অর্জন করেছে। তার পাশাপাশি সরকার দেশকে উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য আপ্রাণ প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন বলে তিনি জানান।

এসময়ে তিনি গুইমারা উপজেলার জন্য একটি সোনালী ব্যাংকের শাখার অনুমোদন চুড়ান্ত হয়েছে মর্মে জানান।

পরিশেষে, ফরমালিনমুক্ত খাগড়াছড়ির সুস্বাদু রুপালি আম দেশে ইতিমধ্যে সুনাম অর্জন করেছে, সে সুনাম যাতে অক্ষুণ্ণ থাকে সেদিকে আম চাষীদের বিষেশ মনোযোগ রাখার জন্য তিনি আহ্বান জানান।

বিশেষ অতিথি গুইমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পঙ্কজ বড়ুয়া বলেন, গুইমারায় আসার পর তিনি শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং নিরাপদ পানি এই তিনটি বিষয়ে সবচেয়ে গুরুত্ব দিয়েছেন এবং সে লক্ষে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানান।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, সকলে মিলে গুইমারার উন্নয়নে কাজ করলে তবেই গুইমারা উপজেলা একটি মডেল উপজেলায় রুপান্তরিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *