দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীকে নতুন ঘর তুলে দিল দীঘিনালার নিরাপত্তাবাহিনী


দীঘিনালা প্রতিনিধি:

দীঘিনালার কালাকচু চাকমা চোখের আলো না থাকলেও দুই হাতের পরশে চমৎকার ভাবে বাঁশ ও বেত শিল্পের বিভিন্ন উপকরণ তৈরি করতে পারেন।  আর এসব উপকরণ বাজারে বিক্রি করেই জীবিকা নির্বাহ করে আসছে।প্রতিবন্ধীরা বর্তমানে সমাজের বোঝা নয়, তারা বিভিন্নভাবে অবদান রাখতে পারে। তাদের সহযোগিতায়  সকলের এগিয়ে আসা দরকার।

রবিবার (১৪ জানুয়ারি) দীঘিনালা উপজেলার জোড়াব্রিজ এলাকার দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী কালাকচু চাকমাকে (৫২) দীঘিনালা জোনের উদ্যোগে একটি টিনসেডের নতুন ঘর  এবং লালন-পালনের জন্য তিনটি ছাগল বুঝিয়ে দেয়ার সময় এসব কথা বলেন খাগড়াছড়ি ২০৩ পদাতিক ডিভিশনের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুল মোতালেব সাজ্জাদ মাহমুদ।

এসময় কালাকচু চাকমার বাড়িতে উপস্থিত ছিলেন, দীঘিনালা জোন অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দীন মাহমুদ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নব কমল চাকমা, ভাইস চেয়ারম্যান গোপাদেবী, দীঘিনালা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজু এবং কবাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন, মৌজা প্রধান দীপঙ্কর দেওয়ান প্রমুখ।

পরে রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুল মোতালেব সাজ্জাদ মাহমুদ দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী কালাকচু চাকমার সাথে কথা বলেন এবং তার পরিবারের খোঁজ খবর নেন।

এসময় কালাকচু চাকমার নিজ হাতে তৈরি দু’টি ঝুড়ি উপহার হিসেবে তুলে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *