দীঘিনালায় ইউপিডিএফের দু’পক্ষের বন্দুকযুদ্ধ: নিহত ১, আহত ৩, আতঙ্কে গ্রামবাসী


দীঘিনালা প্রতিনিধি:
দীঘিনালায় ইউপিডিএফের বিবদমান দুই পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ হয়েছে| বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল নটায় উপজেলার ১নং যৌথ খামার এলাকায় এ ঘটে| ঘটনার পর পুলিশ ও নিরাপত্তাবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত সাইন চাকমা(২৮)র লাশ উদ্ধার করে| নিহত সাইন চাকমা উপজেলার কবাখালী ইউনিয়নের রস্যামুনি কার্বারী পাড়া গ্রামের ভুবন বিজয় চাকমার ছেলে|

জানা যায়, বুধবার সকাল নয়টায় উপজেলার ১নং যৌথ খামার এলাকায় অাধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইউপিডিএফের বিবদমান প্রসীত বিকাশ পক্ষ এবং বর্মা পক্ষ সমর্থিত দুই পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়| গোলাগুলির এক পর্যায়ে সাইন চাকমা (২৮) নামে একজন ঘটনাস্থলেই নিহত হন| এঘটনায় অনিল ত্রিপুরা(৪০), মিলন ত্রিপুরা(২৮) এবং রুবেল চাকমা(২৬) নামে অারো তিনজন অাহত হন। অাহত অনিল ত্রিপুরার অবস্থা অাশঙ্কাজনক| এঘটনার পর এলাকায় অাতঙ্ক ছড়িয়ে পরে| ভয়ে গ্রামের লোকজন বাড়িঘরের দরজা-জানালা বন্ধ করে নিরাপদে অন্যত্রে চলে যায়|

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানান, সকাল নয়টার দিকে সুমন চাকমার বাগানের দিকে বন্দুকের গুলির শব্দ শুনতে পাই| পরে অাধা ঘন্টাব্যাপী থেমে থেমে চলে উভয় পক্ষের গুলি বিনিময় চলে| এসময় উভয় পক্ষ কমপক্ষে ৫০ রাউন্ড গুলি বিনিময় করে|

নিহত সাইন চাকমার পিতা ভুবন বিজয় চাকমা জানান, দুই ছেলে এক মেয়ের মধ্যে সাইন চাকমা সবার বড়| সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার পর গত ছয় মাস যাবৎ পরিবারের সাথে যোগাযোগ ছিল না|

এদিকে ইউপিডিএফের প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তি মারফতে সাইন চাকমা নিহত হওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় অনিল ত্রিপুরা(৪০), মিলন ত্রিপুরা(২৮) এবং রুবেল চাকমা(২৬) নামে অারো তিনজন অাহত হয়েছে| এরমধ্যে অাহত অনিল ত্রিপুরার অবস্থা অাশঙ্কাজনক| এঘটনায় ইউপিডিএফ প্রসীত বিকাশ পক্ষ ইউপিডিএফ-গণতন্ত্র বর্মা পক্ষকে দায়ী করা হয়|

ইউপিডিএফ(গণতন্ত্র)র সদস্য সচিব জয়েলা চাকমা তরু জানান, ঘটনাটি ইউপিডিএফের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে ঘটেছে| এঘটনায় ইউপিডিএফ-গণতন্ত্র জড়িত নয়|

দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সামসুদ্দিন ভুইয়া বন্দুক যুদ্ধের সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঘটনাস্থল থেকে সাইন চাকমার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে| | তবে নিহতের বাম উরু এবং বুকের বাম পাশে বিদ্ধ হওয়া গুলির দাগ রয়েছে|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *