থানচিতে জনগণের দোরগোড়ায় পানি পৌঁছতে প্রাণপন চেষ্টা জনস্বাস্থ্য বিভাগ’র


থানচি প্রতিনিধি:

সরকার এসডিজি-১০ ঘোষণাকে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে থানচি উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ ব্যাপক কর্মসূচি ও উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রিংওয়েল ও ডিবওয়েল নির্মাণ, জিএসএফ পাইপের সাহায্যে বিভিন্ন ঝিড়ি ঝর্ণা থেকে ফিল্টারিং এর মাধ্যমে পানি সরবরাহকরণসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছে। ইতিমধ্যে ২৫টি রিংওয়েল ১টি ডিবওয়েল নির্মাণ ও বাস্তবায়ন কাজ করছেন। আগামী শুকনো মৌসুমের মধ্যে বাস্তবায়ন করবেন বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।

উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের সূত্রে জানা যায়, ২০১৭-১৮ সালে ২৫টি রিংওয়েল থানচি সদর ও বলিপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন পাড়ায় ও বাজারের সংলগ্ন এলাকায় নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। ১৫টি রিংওয়েল বিপরীতে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রতিটি ১ লক্ষ ২০ হাজার করে মোট ৩০ লক্ষ টাকা। থানচি উপজেলা এক মাত্র স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনের অন্তবিভাগ চালু করার জন্য বিশুদ্ধ পানীয় সরবরাহ কাজ চলতি নভেম্বর মাসে শুরু করেছে। পরীক্ষামূলক ভাবে প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে একটি ডিবওয়েল। ডিবওয়েল নির্মাণের ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা।

থানচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ডিবওয়েল নির্মাণ শ্রমিক ফারুক আহম্মদ মিস্ত্রি জানান, ইতিমধ্যে ৩টি স্থানের নিচে পাথর থাকায় স্থান পরিবর্তন করে একটি স্থানে প্রায় ৩শত ফুট পাইপ মাটির নিচে প্রবেশ করার পর পানি পেয়েছি এবং পানির স্তর পর্যন্ত পৌঁছে গেছে। আমরা এই প্রকল্পের কাজের সফলতা পেয়েছি।

প্রকল্পের বাস্তবায়নের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের উপসহকারী কর্মকর্তা মো. মুজিবর রহমান জানান, উন্নয়ন বোর্ড অর্থায়নে থানচি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ডিবওয়েল নির্মাণ করে সফলতাকে কাজে লাগিয়ে আমরা  হাসপাতালের অন্তবিভাগ চালুর জন্য রোগী এবং সংশ্লিষ্টদের পানি সরবরাহ নিশ্চিৎ এর লক্ষ্যে ডিবওয়েল কাজ পরীক্ষামূলকভাবে সফল হয়েছে।

ঊর্ধ্বতন কর্তৃপেক্ষের অনুমোদন নিয়ে আগামীতে প্রধান মন্ত্রী ঘোষণা এসডিজি-১০ এর আওতায় অন্তর্ভুক্তকরনে জনস্বাস্থ্য বিভাগ সর্বদায় কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে অধিকাংশ আদিবাসীদের পাড়া জিএসএফ পাইপ লাইনের মাধ্যমে পানি সরবরাহ প্রকল্প সফল ভাবে বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *