তাইন্দংয়ে নিহত ইয়াছিন মেম্বারের পরিবারের দায়িত্ব দিলেন আওয়ামীলীগ নেতা


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা :

দীর্ঘদিন পরে হলেও ২০০১ সালে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় নিহত তাইন্দং ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি মো. ইয়াছিন মেম্বারের পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম। এসময় তিনি গণমানুষের জন্য ইয়াছিন মেম্বারের রাজনীতির স্বীকৃতি দিয়ে ইয়াছিন মেম্বারের দুই মেয়ের লেখাপড়া ও ঐ পরিবারের ভরণপোষণের দায়িত্বভারও গ্রহণ করেন।

তাইন্দংয়ের ইয়াছিন মেম্বার নিহত হওয়ার ১৭ বছরের মাথায় শনিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরের দিকে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে ইয়াছিন মেম্বারের তাইন্দংয়ের বাড়িতে যান খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম। ইয়াছিন মেম্বারের কবর জিয়ারত শেষে তিনি নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি রাজনীতির শিকার ইয়াছিন মেম্বারের স্ত্রীর হাতে নগদ ১৪ হাজার টাকাসহ ৬৪ হাজার টাকার অনুদান তুলে দেন। এসময় তিনি এয়াছিন মেম্বারের দুই মেয়ের লেখাপড়াসহ ঐ পরিবারের যাবতীয় ভরণপোষণের দায়িত্বভারও গ্রহণ করেন।

এসময় তার সাথে খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মো: জহির উদ্দিন ফিরোজ, সহ-সভাপতি ইমাম হোসেন মানিক, মো. মাইনুল ইসলাম, মো. ফারুক হোসেন ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহীন সরকারসহ জেলা ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৭ বছরের একটা বড় সময় আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকলেও কেউই রাজনীতির শিকার শহীদ ইয়াছিন মেম্বারের পরিবারসহ তার এতিম দুই মেয়ের খবর রাখেনি জানিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জহির উদ্দিন ফিরোজ এ প্রতিবেদককে বলেন, কেউ যা করেনি খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম তা করে শহীদ ইয়াছিন মেম্বারের রাজনীতির স্বীকৃতি দিয়েছে। দলের সুসময়ে সুবিধাবাদীদের দৌরাত্মে ইয়াছিন মেম্বারের ত্যাগ হারিয়ে গেছে বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *