ডায়ানার গোপন ভিডিও সম্প্রচারে আপত্তি রাজ পরিবারের


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

প্রিন্সেস ডায়ানাকে নিয়ে একটি তথ্যচিত্র সম্প্রচার করবে ব্রিটেনের এক টেলিভিশন চ্যানেল। সম্প্রচারিত হবে আজ। কিন্তু এতে ঘোর আপত্তি জানিয়েছে ডায়ানার পরিবার, বন্ধু এবং তার ঘনিষ্ঠমহল।

এ মাসের শেষেই ডায়ানার মৃত্যুবার্ষিকী। তার আগেই প্রিন্সেস-এর এই তথ্যচিত্র নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ওই তথ্যচিত্রে নাকি তুলে ধরা হবে ডায়ানার যৌন জীবন এবং যুবরাজ চার্লসের সঙ্গে অসুখী দাম্পত্য জীবনের কথা। এমনই দাবি করেছে চ্যানেলটি। তথ্যচিত্রটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ডায়ানা: ইন হার ওন ওয়ার্ডস’।

কেন ডায়ানার ব্যক্তিগত জীবনকে প্রকাশ্যে আনা হচ্ছে এ নিয়ে ইতিমধ্যেই সমালোচনার ঝড়ও উঠেছে সে দেশে। বাকিংহাম প্যালেসের প্রাক্তন সংবাদ সচিব ডিকি আরবিটারের মতে, এ ধরনের সম্প্রচার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা পরিবারের মর্যাদা হানি করবে। দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট-কে তিনি জানান, সব বিষয় জানার তো আমাদের প্রয়োজন নেই! গোপনটা গোপন রাখাই ভাল।

১৯৯২-৯৩ সালে কেনসিংটন প্যালেসে ডায়ানার কণ্ঠ প্রশিক্ষক (ভয়েস কোচ) পিটার সেটেলেনের সঙ্গে কথোপকথনের সময়ে এই তথ্য রেকর্ড হয়েছিল। ২০০৪-এ ডায়ানার উপর একটি তথ্যচিত্র তৈরি করা হয়েছিল। সেটা আমেরিকাতে সম্প্রচার হয়। কিন্তু সেখানে খণ্ড খণ্ড ভাবে বিষেয়টি দেখানো হয়েছিল। তবে ব্রিটিশ চ্যানেলটির দাবি, তাদের তৈরি যে তথ্যচিত্র সেখানে এমন কিছু ফুটেজ রয়েছে যা আগে কখনও কেউ দেখায়নি।

দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ডায়ানার ভাই আর্ল স্পেনসার নাকি ব্রিটিশ চ্যানেলটিকে আবেদন জানিয়েছেন এই ছবি সম্প্রচার হলে ডায়ানার দুই ছেলে প্রিন্স উইলিয়াম এবং প্রিন্স হ্যারির মনে আঘাত লাগবে। ডায়ানার ঘনিষ্ঠ রোসা মন্কটন গার্ডিয়ানকে বলেন, “এটা জনসমক্ষে আনার মতো বিষয় নয়।”

এক ব্রিটিশ দৈনিক ইতিমধ্যেই ওই টেপের যে অংশবিশেষ প্রকাশ করেছে তাতে রয়েছে দেহরক্ষী ব্যারি ম্যান্নাকির সঙ্গে ডায়ানার প্রেমের সম্পর্কের কথা।

এথেকে ধারণা করা যায়, এমন অনেক জানা অজানা আকর্ষণীয় ও আপত্তিকর কাহিনীতে ভরপুর থাকবে আলোচ্য তথ্যচিত্র। তাই কি এটা নিয়ে এত রাখঢাক?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *