জীবনের শেষ মুহুর্তে ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়ে দাঁড়াবার চেষ্টা করছে কাপ্তাইয়ের দানু মিয়া


life-copy

কাপ্তাই প্রতিনিধি:

জীবনের শেষ মুহুর্তে এসে  ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়ে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে সত্তর উর্ধ্বে দানু মিয়া। নিজ  জেলা নরসিংদি, ঢাকা হতে দীর্ঘ ৪০ বছর পূর্বে রাঙ্গামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার  নতুনবাজার এলাকায় ৪ ছেলে ২ মেয়ে নিয়ে  দানু মিয়া বসবাস  করে। কয়েক বছর পূর্বে দানু মিয়ার স্ত্রী না ফেরার দেশে চলে যায়।

দানু মিয়া বলেন, কাপ্তাই আসার পর পরিবার পরিজন নিয়ে চলার জন্য রাজমিস্ত্রী কাজ করে সংসার চালাই। চোখের সমস্যার কারণে এবং বয়স হওয়ার দরুন দেহে আর কুলোয় না। তাই  রাজমিস্ত্রী কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছি। ছেলে-মেয়েরা বড় হয়ে নিজ, নিজ কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। তাই জীবনের শেষ মুহুর্তে অন্য কিছু  না করে নিজে চলার জন্য ১৫হাজার টাকা দিয়ে একটি ইক্ষু (আখ) ভাংগার মেশিন নেই। সেই মেশিনের চাকা ঘুড়িয়ে ইক্ষুর রস ভেঙে বিক্রি করি।

তিনি আরো বলেন, দশ টাকা করে একগ্লাস রস বিক্রয় করে প্রতিদিন ৫-৬শ টাকা বিক্রয় করে আমার সংসার চলে যায়। প্রতিদিন নতুনবাজার কাপ্তাই-চট্রগ্রাম সড়কের পাশে একটি ঝুপড়ি নিচে বসে   রস (শরবত) বিক্রয় করি আমি।

এরপর দানু মিয়া মুখে হাসি দিয়ে  বলেন, দেখি জীবনের শেষ মুহুর্তে এসে এ চাকা ঘুড়িয়ে  আামার ভাগ্যের চাকার পরিবর্তন ঘটাতে পারি কিনা। এ প্রত্যাশায় রয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *