চট্টগ্রামে বন্য পশু শিকার করতে গিয়ে রাঙ্গামাটির ২ পাহাড়ি যুবকের মৃত্যু


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

চট্টগ্রামে বিদ্যুৎ দিয়ে বণ্য প্রাণী শিকার করতে গিয়ে রাঙামাটির ২ পাহাড়ি যুবক নিজেদের পাতা ফাঁদে বিদ্যুতায়ীত হয়ে নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- মনা সিং মারমা (১৮) ও কিউ তা চি মারমা (১৯)।

বৃহস্পতিবার (২৪ মে) সকালে সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারী সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রিত গলফ্ ক্লাব এলাকা থেকে পুলিশ লাশ দুইটি উদ্ধার করে। নিহত দুইজনের বাড়ি কাপ্তাইয়ের চন্দ্রঘোনা এলাকায়। তারা সানমার নামক একটি কারখানার শ্রমিক বলে জানা যায়।

সকালে স্থানীয় জনসাধারণ ভাটিয়ারীর গলফ ক্লাব থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দুরে রাস্তার পাশে লাশ দুটি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে লাশগুলো উদ্ধার করে।

সীতাকুণ্ড সার্কেল পুলিশ সুপার শম্পা রানী, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইফতেখার হাসান এবং ওসি (তদন্ত) মোজাম্মেল হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

জানাযায়, ভাটিয়রী গলফ্ ক্লাব থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দুরে রাস্তার পাশে লেকের ধারে জঙ্গলে বন্য প্রাণী শিকার করার জন্য মামরারা বিদ্যুতের তার দিয়ে জঙ্গলে বেড়া দেয়, গত রাতের কোন এক সময় জিইএ তার দিয়ে জঙ্গলে লাইন দিতে গিয়ে দুই মারমা যুবক বিদ্যুতায়ীত হয়ে মারা যায়। সকালে স্থানীয় জনসাধারণ লাশ দুটি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ দুইটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোজাম্মেল হক লাশ দুইটি উদ্ধারের বিষয়টি স্বীকার করলেও তাৎক্ষনিকভাবে আর কিছু জানাননি। নিহত দুই মারমা যুবক সানমার নামক একটি কারখানার শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। তাদের বাড়ি কাপ্তায়ের চন্দ্রঘোনা এলাকায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *