চকরিয়ায় সীমানা বিরোধে এক ব্যক্তিকে গলাকেটে হত্যার চেষ্টা: স্বামী-স্ত্রী গ্রেফতার



চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় বসতভিটা সীমানা বিরোধের ঘটনাকে কেন্দ্র করে মোক্তার হোসেন(৪০)নামের এক ব্যক্তিকে গলাকেটে হত্যার চেষ্টা চালিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত মোক্তার হোসেন উপজেলার চিরিংগা ইউনিয়নের দক্ষিণ পালাকাটা এলাকার শের আলীর পুত্র। ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছেন থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত আসামিরা হলেন, ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের নুরুল ইসলামের পুত্র মনির উদ্দিন(৩৫)তার স্ত্রী দিলরুবা বেগম (২৮)।

রবিবার(২২অক্টোবর) সকাল ৭টার দিকে উপজেলার চিরিংগা ইউনিয়নে দক্ষিণ পালাকাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তার অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার চিরিংগা ইউনিয়নে দক্ষিণ পালাকাটা এলাকার শের আলীর পৈত্রিক বসতভিটা ও সীমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল পাশ্বোক্ত ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ছায়রাখালী এলাকার নুরুল ইসলাম ও তার পুত্রদ্বয়ের সাথে।

রবিবার সকাল ৭টার দিকে বসতভিটা সীমানা বিরোধে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ঘটনার এক পর্যায়ে নুরুল ইসলাম ও কবির আহমদের পুত্র মনির উদ্দিন, নওশেদ আলী ও মঈন উদ্দিনের নেতৃত্বে ধারালো অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে অতর্কিত ভাবে শের আলীর পরিবারের লোকজনের উপর হামলা চালায়। হামলার এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ লোকজন শের আলীর পুত্র মোক্তার হোসেনকে দুর্বৃত্তরা চাকু দিয়ে গলাকেটে হত্যার চেষ্টা চালিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।

আহত ব্যক্তিকে স্থানীয় ও পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার খবর পেয়ে চকরিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সংঘর্ষে জড়িত থাকার অভিযোগে থানার এস আই এনামুল হকের  নেতৃত্বে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘটনার বিষয়টি শুনে তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আহত পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো কোন লিখিত অভিয়োগ দেয়নি। অভিয়োগ পেলে তদন্তপূর্বক ভাবে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *