চকরিয়ায় সিরিজ ডাকাতির ঘটনায় জড়িত তিন ডাকাত গ্রেপ্তার


গ্রেফতার

চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় অতি সম্প্রতি একাধিক দুর্ধর্ষ ডাকাতি ও চুরির ঘটনার রহস্য উদঘাটন শুরু হয়েছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এক ডাকাতকে গ্রেপ্তারের পর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী এসব ডাকাতিতে ব্যবহৃত সিএনজি চালিত একটি অটোরিক্সা জব্দ এবং ডাকাতি হওয়া কিছু টাকাও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, এসব ডাকাতিতে জড়িতে রয়েছে মর্মে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নুরুল ইসলাম লালু (২৪) নামের এক ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ঈদমণি এলাকা থেকে লালুকে গ্রেপ্তার করা হয় মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার দিকে। সে ওই এলাকার নাজেম উদ্দিনের ছেলে।

চকরিয়া থানার এসআই মো. আলমগীর জানান, লালুকে গ্রেপ্তারের পর পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে এবং তার আরো কয়েকজন সহযোগী মিলে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ছিকলঘাট এলাকার ঠিকাদার ফরিদুল আলম, পৌরসভার হাসপাতাল সড়কের প্রবাসী মাহমুদুল হকের বাড়িতে ডাকাতি, কাকারা ইউনিয়নের মাস্টার তাজুল ইসলামের বাড়ি ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত রয়েছে মর্মে স্বীকার করে। লালুর স্বীকারোক্তি অনুযাযী ডাকাতিতে ব্যবহৃত সিএনজি অটোরিক্সাটি সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনা-বাটাখালী এলাকা থেকে জব্দসহ চালক সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনা এলাকার নুরুল আমিনের ছেলে আবদুল্লাহ খোকাকে (৩২) গ্রেপ্তার করা হয় মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে। অভিযানে তার সাথে ছিলেন থানার অপারেশন অফিসার তারভীর আহমদ ও উপপরিদর্শক (এসআই) সুকান্ত চৌধুরী।

এসআই আলমগীর আরো জানান, এসব ডাকাতিতে নেতৃত্ব দিয়েছেন পৌরসভার হালকাকারা গ্রামের মোক্তার আহমদের ছেলে আবদু শুক্কুর। মুলত তার পরিকল্পনাতেই এসব ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। আবদু শুক্কুরকেও একইরাতে উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের মেদাকচ্ছপিয়া ঢালার পূর্ব পার্শ্বে মইক্যারঘোনাস্থ পাইপের তলায় একটি বাড়িতে ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার সময় অভিযান চালিয়ে দেশীয় তৈরি একটি এল.জি (এক নলা বন্দুক) ও দুই রাউন্ড গুলিসহ গ্রেপ্তার করা হয়।

চকরিয়া থানার ওসি মো. জহিরুল ইসলাম খান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে প্রথমে লালু ডাকাতকে গ্রেপ্তার এবং তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ডাকাতিতে ব্যবহৃত সিএনজি অটোরিক্সাসহ চালক আবদুল্লাহ খোকাকে, সর্বশেষ খোকার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ডাকাতিতে নেতৃত্ব দেওয়া আবদু শুক্কুরকে অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা সকলেই এসব ডাকাতিতে নিজেদের জড়িয়ে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *