চকরিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীর ওপর হামলাকারী মিনহাজ গ্রেফতার


গ্রেফতার

চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে প্রেম নিবেদনের প্রস্তাব না মানায় হামলাকারী বখাটে মিনহাজ উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার রাতে বখাটে মিনহাজকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সহায়তায় পুলিশ গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় একই রাতে দায়ের করা হয় মামলাও। ছাত্রীর বাবা মোকতার আহমদ বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ১০-সহ পেনাল কোডের ধারায় বখাটে মিনহাজ উদ্দিনকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করা হয়।

এদিকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ক্ষত যন্ত্রণায় কাতর থাকা হুরে জন্নাত বিলকিসের চিকিৎসা চলছে ভালভাবে। রবিবার রাতে তার দুই হাতে অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়। এতে সোমবার বিকেল থেকে ওই ছাত্রীর অবস্থার উন্নতি হতে শুরু করে বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও ছাত্রীর বাবা নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতার বখাটে মিনহাজ উদ্দিন উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নের মধ্যম কোনাখালী সেনঘোনার আবুল কাশেমের ছেলে। আর হামলার শিকার হুরে জন্নাত বিলকিস একই গ্রামের মোকতার আহমদের কন্যা এবং কোনাখালী হেদায়তুল উলুম দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রী।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুল আজম জানান, মাদ্রাসা ছাত্রী হুরে জন্নাত বিলকিসকে ব্লেড দিয়ে ক্ষতবিক্ষত করা বখাটে মিনহাজকে রবিবার রাতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে। এ ঘটনায় বিলকিসের বাবা মোকতার আহমদ বাদী হয়ে থানায় মামলাও করেন ওই রাতে।

বিলকিসের বাবা ও মামলার বাদী মোকতার আহমদ বলেন, ‘আমার এখন একমাত্র চাওয়া বিলকিসের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িত বখাটে মিনহাজের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা।’

উল্লেখ্য, ৫জানুয়ারী সকালে উপজেলার কোনাখালীতে মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে বখাটে মিনহাজ হামলা চালায় মাদ্রাসা ছাত্রী হুরে জন্নাত বিলকিসের ওপর। এ সময় ব্লেড দিয়ে বিলকিসের দুই হাতে আঘাত করলে ৫টি রগ কেটে যায়। এতে সে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে এবং অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *