চকরিয়ায় বিদ্যালয়ের ২ শতাধিক মূল্যবান বাঁশ কেটে লুটের চেষ্টা, জব্দ করেছে প্রশাসন


CHAKARIA HARBAGN 28-5-17 copy

চকরিয়া প্রতিনিধি :

চকরিয়া উপজেলার হারবাং নয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মূল্যবান ২শতাধিক বাঁশ কেটে লুটের চেষ্টা করেছে দখলবাজ দূর্বৃত্তরা। পরে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে কেটে নেওয়া বাঁশ জব্দ করা হয়েছে। ইতিপূর্বে বিদ্যালয় বন্ধকালীন সময়ে প্রায় ৩০টি বাঁশ চুরি করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগে জানা যায়, হারবাং নয়াপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মালিকানাধীন জমির বাউন্ডারীর ভেতর থেকে ২শতাধিক বাঁশ কেটে লুটের চেষ্টা চালায় স্থানীয় গিয়াস উদ্দিন ও আবু সহ বেশ কয়েকজন দূর্বৃত্ত। সম্প্রতি কেটে নেওয়া বাঁশের বিষয়ে খবর পেলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)র নির্দেশে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা খুরশীদুল আলম চৌধুরী, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ারুল কাদের ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামসহ স্থানীয় লোকজন উপস্থিত হয়ে কেটে নেওয়া বাঁশ জব্দ করেছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বাঁশগুলো জব্দ করার পর থেকে একটি একটি করে প্রায় ৩০টি মূল্যবান বাঁশ চুরি করে নিয়ে গেছে। স্থানীয়রা প্রকাশ্যে বাঁশগুলো নিলামে দেওয়ার দাবি জানান। তারা আরও জানান, দীর্ঘদিন ধরে বাঁশগুলো থাকায় স্কুল শিক্ষার্থীরা শামিয়ানা হিসেবে শান্ত পরিবেশে ছাঁয়া ও বাতাস পেয়ে আসছিল। সেগুলো কেঁটে নেওয়ায় শিক্ষার্থীদের দূর্ভোগ হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা খুরশীদুল আলম চৌধুরী জানিয়েছে, কেটে নেওয়া বাঁশগুলো জব্দ করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশনা পেলে প্রকাশ্যে ইজারা দেওয়া হবে।

২৮ মে রাত সাড়ে ১০টার দিকে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাহেদুল ইসলাম জানিয়েছেন, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি অবগত নন। উপজেলা শিক্ষা অফিসারের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে এবং যারা বাঁশ কাটার সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *