চকরিয়ায় দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় দুর্বৃত্ত সন্ত্রাসীরা গুড়িয়ে ফেলে বাউন্ডারী ওয়াল


চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় জের ধরে রাতের আঁধারে একদল স্বশস্ত্র দুর্বৃত্ত সন্ত্রাসীরা গুড়িয়ে দেয় নির্মিত বাউন্ডারি ওয়াল। এতে ক্ষতিগ্রস্ত ও ভুক্তভোগী পরিবারের প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) ভোর রাত ৪টার দিকে উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নস্থ চকরিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রবেশ পথ সংলগ্ন ও চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক লাগোয়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন এলাকায় চকরিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রবেশ পথ সংলগ্ন ও চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক লাগোয়া লক্ষ্যারচর মৌজার পৈত্রিক ৬শতক জায়গায় বসতবাড়ির জন্য প্রায় এক সপ্তাহ সময় ধরে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ করে আসছে।

একই এলাকার মৃত নুর আহমদ প্রকাশ নিলামী নুর আহমদের ওয়ারিশ মো. নাজেম উদ্দিন। জায়গার বিষয় ব্যাপারে দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ার জের ধরে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হাজ্বী নুরুল কবিরের ইন্ধনে তার পুত্র মো. আবু ইউসুফের নেতৃত্বে ১৫/২০জনের একদল স্বশস্ত্র দুর্বৃত্ত সন্ত্রাসীরা দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায়, পরিকল্পিত ভাবে রাতের আঁধারে হামলা চালিয়ে নাজেম উদ্দিনের নির্মিত বাউন্ডারি ওয়াল সম্পূর্ণ ভাবে গুড়িয়ে দেয়। এতে বসতভিটা জায়গা মালিক নাজেম উদ্দিনের প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধিত হয়।

ভোক্তভোগী ও জায়গার মালিক নাজেম উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, লক্ষ্যারচর মৌজায় পৈত্রিক ৬শতক (১৮কড়া) জায়গায় বসতভিটা জন্য দীর্ঘ  এক সপ্তাহ ধরে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ করে আসছি। হঠাৎ রাতে এই জায়গার ব্যাপারে  স্থানীয় সাবেক চেয়ারম্যান হাজ্বী নুরুল কবিরের পুত্র মো. আবু ইউসুফ মোটা অঙ্কের টাকা চাঁদা দাবি করেন। দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ার কারণে তার নির্মিত বাউন্ডারি ওয়াল স্বশস্ত্র দুবৃর্ত্ত সন্ত্রাসীদের নিয়ে সম্পূর্ণ ভাবে গুড়িয়ে ফেলে। এতে তার প্রায় দুইলক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

তিনি আরো বলেন, ওয়াল নির্মাণ কাজ করার সময় আবুল কালামের পুত্র সাগর নামের এক ব্যক্তি কাজের স্থান থেকে নির্মাণ শ্রমিকের বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ নিয়ে ভোক্তভোগী পরিবার থানায় অভিয়োগ দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মো. মিজানুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ধরণের কোন ঘটনার বিষয় আমার জানা নেই। তবে কেউ অভিযোগ করলে তা তদন্তপূর্বক আইনগত ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

নিউজটি চকরিয়া বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *