parbattanews bangladesh

চকরিয়ায় তুচ্ছ ঘটনায় দু’দফা হামলা, সাবেক কমিশনারসহ আহত-৭

চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’দফা হামলায় একই এলাকার লোকজনের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে সাবেক কমিশনার ও স্কুল পড়ুয়া ছাত্রীসহ অন্তত ৬জন গুরুতর আহত হয়। পরে ঘটনার খবর পেয়ে থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে।

রবিবার(১৫এপ্রিল)দুপুর আড়াটার দিকে চকরিয়া পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের ঘনশ্যাম বাজার পাড়া এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ একটি মোটর সাইকেল জব্দ করে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, চকরিয়া পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের ঘনশ্যাম বাজার পাড়াস্থ আহমদ কবিরের পুত্র পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার নুরুল হোসেন ও একই এলাকার মৃত হাকুম আলীর পুত্র জাহাঙ্গীর আলম প্রকাশ দুদু মেম্বারের মধ্যে রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে তুচ্ছ ঘটনার বিষয় নিয়ে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ঘটনার জের ধরে দুদু মেম্বারের নেতৃত্বে তার পুত্র রিয়াদ, নুরুল আজিম, খলিলুর রহমানের পুত্র সোয়ান নুর তার ভাই সাইদুর নুরসহ ১৫/২০জন লোক ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রথমে ঘনশ্যম বাজার এলাকায় ও পরে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসা নরুল হোসেন কমিশনার পক্ষের লোকজনের ওপর কয়েক দফা হামলা চালায়।

এতে বাধা দিতে কমিশনার নুরুল হোসেনসহ নারী-পুরুষ অন্তত ৭জন গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। হাসপাতালে হামলার ঘটনার খবর পেয়ে চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মো. ইয়াছির আরাফাতের নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে হাসপাতালে এসে ঘটনার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে।

এতে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুদু মেম্বারের লোকজনের একটি মোটর সাইকেল জব্দ করেছে। ঘটনার হামলার শিকার ও আহত ব্যক্তিরা হলেন, জামাল উদ্দিনের কন্যা সিকদার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী শিমু আকতার (১৩), মৃত আবু তালেবের স্ত্রী আয়েশা বেগম(৫৫), সাইফুর রহমানের স্ত্রী জনুয়ারা বেগম(৪৫), আহমদ কবিরের পুত্র নুরুল কবির(৪৮), তার পুত্র নুর নবী(২০), ছেলে নুরুল কাদের (৪০) ও মুবিনুল হক (২০)। ঘটনায় দু’পক্ষের আহত লোকজনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় প্রায় এক ঘণ্টা ধরে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত)মো. ইয়াছির আরাফাতের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি। তবে এখনও পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।