চকরিয়ায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন


চকরিয়া প্রতিনিধি:

দেশের প্রাচীনতম শিক্ষা, শান্তি ও প্রগতির পতাকাবাহী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ইতিহাস-ঐতিহ্য-গৌরব ও সাফল্যের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী কক্সবাজারের চকরিয়ায় পৌরসভা ছাত্রলীগের বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে আনন্দ র‌্যালি, কেক কাটা ও আলোচনার সভার মাধ্যমে দিবসটি পালন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার(৪ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চকরিয়া শহীদ আবদুল হামিদ পৌর বাস টার্মিনাল থেকে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা পারভেজের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নবীন ও প্রবীণদের নিয়ে এক বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি ও শোভযাত্রা বের করা হয়।

র‌্যালিটি কক্সবাজার মহাসড়কের পৌরশহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে চিরিংগাস্থ সড়ক ও জনপথ কার্যালয়ের ডাক বাংলোতে গিয়ে বিশাল ছাত্র সমাবেশে মিলিত হয়। ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালি ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাফর আলম এমএ।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক খালেদ মাহামুদ মিথুন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা আমিনুর রশিদ দুলাল, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা মো. আলমগীর চৌধুরী, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক ছাত্রনেতা ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা আতিক উদ্দিন চৌধুরী, পৌরসভা ৮নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা আমির হোসেন আমু, চকরিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি হাসানগীর হোছাইন প্রমুখ।এ ছাড়াও ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী র‌্যালিতে আওয়ামী লীগ,

যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সমাবেশে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হচ্ছে এদেশের প্রগতিশীল ও বর্তমান প্রজন্মের আধুনিক ছাত্রদের স্বপ্নের একমাত্র ঠিকানা। ১৯৫২সালের ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ১৯৭১সালে সু-মহান মুক্তিযুদ্ধ, ৯০-এর স্বৈরচার বিরোধী আন্দোলনসহ দেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে মানুষের মৌলিক অধিকার আদায়ে ছাত্রলীগ সার্বক্ষণিক রাজপথে ভূমিকা রেখে আসছে। এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সরকারের ভিশন ও মিশন বাস্তবায়নে বর্তমান ছাত্রলীগ অতন্ত্র প্রহরী হিসেবে তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করছে। ছাত্রলীগের সুদীর্ঘ দিনের গৌরব ও ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে বর্তমান নেতৃত্বে থাকা সকল নেতাকর্মীকে আহ্বান জানানো হয়।

এ ছাড়াও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বের নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করে পুনঃরায় সরকার গঠনে লক্ষে ছাত্রলীগের অগ্রসর ভুমিকা রাখার আহ্বান জানান বক্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *