চকরিয়ায় অপহৃত ছাত্রী ৩৩ ঘণ্টা পর উদ্ধার


অপহরণ
চকরিয়া প্রতিনিধি::
কক্সবাজারের চকরিয়ায় গুলি ছুঁড়ে ও বাড়ির দরজা ভেঙে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার ৩৩ ঘন্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে স্কুলছাত্রীকে। এ সময় অপহরণের মূল হোতা বখাটে মহিউদ্দিনকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গত সোমবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের বালুরচর এলাকায় এক ব্যক্তির পরিত্যক্ত খামার বাড়ি থেকে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার এবং অপহরণকারী বখাটে মহিউদ্দিনকে প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এর আগে শনিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে কাছারীপাড়াস্থ খালুর বাড়ির দরজা ভেঙে ও গুলি ছুঁড়ে একদল বখাটে জোরপূর্বক অপহরণ করে ওই ছাত্রীকে।

পুলিশ জানায়, ছাত্রী অপহরণ, বসতবাড়িতে তাণ্ডব ও লুটপাটের ঘটনায় ওই ছাত্রীর বড়ভাই বাদী হয়ে রবিবার রাতে থানায় একটি মামলা করে। মামলায় ঘোনার পাড়ার আবু ছিদ্দিকের ছেলে মোহাম্মদ মহিউদ্দিনকে (২৫) প্রধান আসামিসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ এবং আরো ১০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।

চকরিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ আলমগীর জানান, মামলা দায়েরের পর অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধার এবং আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ রুদ্ধশ্বাস অভিযান শুরু করে রবিবার রাতে। এ সময় প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে নিশ্চিত হওয়া যায় তারা ডুলাহাজারা ইউনিয়নের বালুরচর এলাকায় অবস্থান করছে। পাশাপাশি স্থানীয়ভাবে সোর্স নিয়োগ করে সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করা হয় স্কুলছাত্রীকে, গ্রেপ্তার করা হয় অপহরণকারী বখাটে মহিউদ্দিনকে।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুল আজম জানান, অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধারের পর ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওসিসিতে প্রেরণ করা হয়। গ্রেপ্তার বখাটে মহিউদ্দিনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার অপর আসামিদের ধরতে এবং ঘটনার রাতে লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *