ঘুমধুমে পাহাড় ধসে হতাহতের ঘটনায় মামলা: ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন


বাইশারী প্রতিনিধি:

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের মঞ্জয়পাড়ায় পাহাড় কাটতে গিয়ে মাটিচাপায় ৩ শ্রমিক নিহতের ঘটনায় প্রজেক্ট মালিক রাজেন্দ্র বড়ুয়ার ছেলে সুপায়েন বড়ুয়াসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

ঘুমধুম ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ প্রধান ছৈয়দ আলম বাদি হয়ে মঙ্গলবার নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় দন্ডবিধি ৩০৪(ক)/১১৪সহ ভূমি ইমারত আইনের ১২(১১) ধারায় মামলাটি রুজু করেন। মামলার বাকি তিনজন আসামি হলেন- সুপায়েন বড়ুয়ার ভাই রিটন বড়ুয়া, ভুট্টো বড়ুয়া ও প্রতিয়া বড়ুয়া। তবে এ পর্যন্ত তাদের কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এদিকে হতাহতের ঘটনা তদন্তে বান্দরবান জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মফিদুল আলমকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াসিন আরফাত, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম সরওয়ার কামাল, বান্দরবান ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের এডি ইকবাল হোসেন ও স্থানীয় ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গির আজিজ। তদন্ত কমিটির সদস্যরা মঙ্গলবার (২২ মে) বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি শেখ আলমগীর বলেন, মাটিচাপায় তিন শ্রমিক নিহতের ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিরা ঘর তালাবদ্ধ করে পালিয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

তদন্ত কমিটির সদস্য ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এসএম সরওয়ার কামাল বলেন, আমরা ঘটনাটি অধিক গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *