গুইমারা কলেজের ১১টি থাই গ্লাসের জানালা ভেঙ্গে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা


গুইমারা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির গুইমারায় নবনির্মিত কলেজ ভবনের ১১টি জানালার গ্লাস ভেঙ্গেছে দুর্বৃত্তরা। যার আনুমানিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ৩ লক্ষ টাকা বলে দাবি করছেন গুইমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম।

রবিবার (৩ ডিসেম্বর ) রাতের অন্ধকারে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানাযায়। গুইমারা রিজিয়নের সার্বিক সহযোগিতায় নির্মিত হয় এই কলেজটি। যা গুইমারার মানুষের স্বপ্নের ফসল। আর এই স্বপ্নকে নষ্ট করার অপচেষ্টা করছে দূষ্কৃতিকারীরা।

এই বিষয়ে গুইমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন ,নবসৃষ্ট গুইমারা উপজেলার উন্নয়নের বড় একটি অংশ এই কলেজটি। নিরাপত্তাবাহিনীর সার্বিক সহযোগিতায় গুইমারায় এই কলেজটি গড়ে উঠেছে। আমাদের ছেলে মেয়েরা অনেক কষ্ট করে পাশ্ববর্তী উপজেলার কলেজে যেতে হতো। অনেক গরীব বাবা যাতায়াত খরচের অভাবে ছেলেমেয়েদের লেখা পড়া বন্ধ করে দিতেন। এসব গরীব অসহায ছাত্রছাত্রীদের কথা ভেবে ব্রিগেডিযার তোফায়েল আহম্মেদ প্রতিষ্ঠা করে দিয়েছেন কলেজটি। যাদের অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের লক্ষে এটি নষ্ট করার অপচেষ্টা করছে তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

গুইমারা সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেমং মার্মা বলেন, গুইমারা উপজেলার শতকষ্টের ফসল এই কলেজটি। গুইমারার দুর্গম এলাকার গরীব পরিবারের ছাত্র ছাত্রীদের কথা ভেবে ব্রিগেডিয়ার তোফায়েল আহম্মেদ আমাদের সকলকে সংগে নিয়ে এই কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেছেন। যারা এর ক্ষতি করতে চায় সে যেই হোক না কেন তাদের কোন রকম ছাড় দেয়া হবেনা।

তবে কলেজ নির্মাণের ঠিকাদার এস অনন্ত  বাবুর সাথে বিষয়টি নিয়ে জানার জন্য মোবাইলে চেষ্টা করে সংযোগ পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *