গুইমারায় ২৫ রাউন্ড গুলিসহ ইউপিডিএফ’র সোর্স আটক


গুইমারা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির গুইমারা বাজার মোটর সাইকেল স্টেশন থেকে বাইল্যাছড়ির মৃত আলী আহম্মেদের ছেলে আবুল হোসেন (৪৮) নামে এক ইউপিডিএফের সোর্সকে আটক করেছে গুইমারা থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৬ডিসেম্বর ) দুপুর ১২.৩০টার সময় গুইমারা মোটর সাইকেল স্টেশনে বই হাতে নিয়ে সন্দেহাতিত ভাবে ঘোরাফেরা করেন ইউপিডিএফের সোর্স আবুল হোসেন। বিষয়টি বাজারের দায়িত্বরত গুইমারা থানার এএসআই শাহাজালালের সন্দেহ হলে সে অফিসার ইনচার্জ সাহাদাত হোসেন টিটুকে অবগত করে। তাৎক্ষনিক অফিসার ইনচার্জ সাহাদাত হোসেন টিটু এএসআই শাহাজালালকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাগটি তল্লাশি করলে ২৫ রাউন্ড তাজা গুলি বের হয়ে আসে বইয়ের ভিতর থেকে।

চতুর ইউপিডিএফের সোর্স আবুল হোসেন একটি ইংরেজি গ্রামার বইয়ের মাঝখানে ব্লেট দিয়ে বক্সএর মত করে কেটে এর ভিতরে করে পাচিং করছে তাজা গুলি গুলো।

স্থানীয় গোপন সূত্রে জানাযায়, সোর্স আবুল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে গরু ব্যাবসা করার পাশাপাশি পার্বত্য সন্ত্রাসী সংগঠন ইউপিডিএফের সোর্স হিসেবে কাজ করে আসছে চতুরতার সহিত।

এই বিষয়ে বাজার ব্যবসায়ীরা জানান, একসময় যেই থানার পুলিশ ইউপিডিএফ, পিসিপির কর্মসূচির সামনে দিয়ে নিরাপত্তা দিতেন কিন্তু বর্তমান অফিসার ইনচার্জ সাহাদাত হোসেন টিটু আসার পর গুইমারা থানায় দায়িত্বরত সকল অফিসারগণই সাহসী হয়ে উঠেছে। এভাবে পুলিশ যদি সন্ত্রাসীদের প্রতি নজর রাখে তাহলে বাজার ব্যবসায়ীরা সন্ত্রাসীদের হাত থেকে মুক্তি পাবে বলে তাদের ধারণা।

গুইমারা থানা অফিসার ইনচার্জ সাহাদাত হোসেন টিটুর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, মঙ্গলবার গুইমারা বাজারে বাজার বার দিন হওয়ার সুবাদে ব্যাপক লোকজন গুইমারা বাজারে আসে। সকল লোকের নিরাপত্তার স্বার্থে বাজারদিন আমরা পুলিশ সদস্যদের বিশেষ নজর রাখার চেষ্টা করি। তারই ধারাবাহিকতায় বাজারে দায়িত্বরত আমাদের এএসআই শাহাজালাল আটককৃত ব্যক্তির উপর সন্দেহ হলে আমি তাৎক্ষনিক ঘটনা স্থলে গিয়ে বইটি তল্লাশি করে ২৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করতে সক্ষম হই। আটককৃতের বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি। এধরনের নিরাপত্তা জনিত ব্যবস্থা সবসময় অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *