গুইমারায় শীলং-তীর জুয়ার সাথে সম্পৃক্ত থাকার দায়ে উপজাতীয় যুবকের ১৫ দিনের কারাদণ্ড


গুইমারা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির গুইমারার যৌথখামার নামক স্থানে শিলং তীর এলাকা থেকে জুয়া খেলার টাকা কালেকশন করার সময় কংহলা অং মারমার ছেলে সুইপ্রু মারমা (১৮) কে আটক করে ১৫ দিনের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। সোমবার(৩০ জুলাই) দুপুরে জুয়া খেলার সিট ও নগদ ১২২৫ টাকাসহ হাতে নাতে আটক করে প্রশাসন।

এবিষয়ে স্থানীয়দের অনেকে বলেন অবশেষে জনপ্রতিনিধিদের অভিযোগ এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর  গুইমারা উপজেলা প্রশাসনের টনক নড়েছে। তবে এসময় গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. গিয়াসউদ্দিনসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. গিয়াসউদ্দিন  বলেন, পুলিশ শিলং তীর’নামক জুয়া খেলা বন্ধের বিষয়ে বদ্ধপরিকর।

এবিষয়ে গুইমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়া শীলংতীর খেলাটি প্রযুক্তিগত কৌশলী জুয়া। এজুয়া কারণে গুইমারা উপজেলার মানুষ অর্থনৈতিক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এটি বন্ধের বিষয়ে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আজ সুইপ্রু মারমা নামে একজনকে হাতে নাতে ধরেছি এবং তাকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ১৫ দিনের সাজা প্রদান করা হয়েছে। যখন  যাকে এই খেলা অবস্থায় পাবো তাকেই ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে শাস্তি প্রদান করা হবে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা।

এ ধরনের অভিযান সবসময়ে অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আরও বলেন, মূল হোতাদের ধরার জন্য আমরা বিভিন্ন স্থানে সোর্স দেওয়া হয়েছে। আশাকরি দ্রুত তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে। এবিষয়ে  সংবাদ প্রকাশের জন্য তিনি সংবাদ কর্মিদের ধন্যবাদও জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *