গুইমারায় পুলিশের হাত থেকে হ্যান্ডক্যাপসহ  পালিয়েছে যুবক


রামগড় প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির গুইমারায় পুলিশের হাতে আটক এক যুবক হ্যান্ডক্যাপসহ পালিয়েছে।

শনিবার (১ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার রামচু বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গুইমারা থানার এএসআই মো: ফারুকের নেতৃত্বে  চার সদস্যের পুলিশের একটি দল শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রামচু বাজার এলাকায় অভিযানে যায়। শিলং তীর জুয়া খেলার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে সাদা পোশাকে পুলিশের এ দলটি ক্যাউজপ্রু মারমা(২৫) নামে এক যুবককে আটক করে। এতে গ্রামবাসিরা পুলিশের ওপর ক্ষুব্দ হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে  ক্যাউজপ্রু মারমা হ্যান্ডক্যাপসহ পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ক্যাউজপ্রু’র বড় ভাই পাইও মারমা(৪০)কে  ধরে থানায় নিয়ে যায়।

স্থানীয় এক গ্রামবাসি জানায়,  ইনিফর্ম না থাকায়  সাদা পোশাকের পুলিশকে প্রথমে লোকজন দুষ্কৃতিকারী ভেবে ঘেরাও করে ফেলে।  পরে তারা নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিলে  গ্রামবাসি শান্ত হয়। পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে যাওয়া ক্যাউজপ্রু মারমা পেশায় যাত্রিবাহী মোটর সাইকেল চালক। সে গুইমারার বটতলী ডিবি পাড়ার বাংলা মারমার ছেলে। 

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে হাফছড়ি ইউপির মহিলা মেম্বার হ্লামাপ্রু মারমা শনিবার রাত সাড়ে ১১ টায় বলেন, তিনি  হ্যান্ডক্যাপটি উদ্ধার করে  ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে থানায়  হস্তান্তর করেছেন। মহিলা সদস্য আরও বলেন,  পুলিশের হাত থেকে পালানো ক্যাউজপ্রু’র বড় ভাইকে ছেড়ে দিতে তারা  থানার ওসিকে অনুরোধ করেছেন।

গুইমারা উপজেলা চেয়ারম্যান উশ্যেপ্রু মারমা জানান, তিনিও ঘটনাটি শুনেছেন। এদিকে গুুইমারা থানার ওসি মো: গিয়াস উদ্দিন  হ্যান্ডক্যাপ নিয়ে  আটক যুবকের  পালানোর  কথা অস্বীকার করেছেন। তবে তিনি   পালিয়ে যাওয়া ক্যাউজপ্রু’র বড় ভাইকে আটকের কথা স্বীকার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *