গুইমারায় পুলিশের টহলসহ ৫টি গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ইউপিডিএফ(প্রসীত) গ্রুপের ৮ নেতাকর্মীর রিমান্ড আবেদন 


নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ির গুইমারায় পুলিশের টহলসহ ৫টি গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ইউপিডিএফ(প্রসীত) গ্রুপের ৮ নেতাকর্মীর ৭ দিন করে রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ। অবরোধ শেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গুইমারা উপজেলার বুদুং পাড়া এবং মাটিরাঙ্গার মুসলিম পাড়া এলাকায় পৃথক এ গাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহাদাৎ হোসেন টিটো জানান, অবরোধ শেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলার বুদুং পাড়া এবং মাটিরাঙ্গার মুসলিম পাড়া এলাকায় ইউপিডিএফ’র(প্রসীত) গ্রুপের কর্মীরা পৃথক হামলা চালিয়ে পুলিশের টহলে ব্যবহৃত চাঁদের গাড়িসহ ৫টি গাড়ি ভাংচুর করে। এসময়  গাড়ি চালক মো. বাবুল হোসেন আহত হয়।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে প্রসীত বিকাশ খীসা নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ’র ৮জনকে আটক করে। রাতে গুইমারা থানায় আরো অন্তত ২০/২২জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে।

পার্বত্য চট্টগ্রামে অন্যতম বৃহৎ আঞ্চলিক সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট’র (ইউপিডিএফ) প্রধান প্রসীত বিকাশ খীসার নেতৃত্বে বিরুদ্ধে সংগঠনের ভিন্নমত পোষনকারীদের হত্যা, চাঁদাবাজি, গুম, খুন, অপহরণ, জাতীয় দিবস বর্জনসহ দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড  ও দুর্নীতি-অনিয়মের অভিযোগ এনে বুধবার খাগড়াছড়িতে সাংবাদিক সম্মেলন করে তপন জ্যোতি চাকমা বর্মা ও জলেয়া চাকমা তরুর নেতৃত্বে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক নামে আলাদা সংগঠনের আত্মপ্রকাশ ঘটে।

নতুন গঠিত ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিককে রাষ্ট্রীয় মদদে নব্য মুখোশ-বোরকা বাহিনী আখ্যায়িত করে প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ আহ্বান করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *