গুইমারায় ধর্ষণের দায়ে আটক: ত্রিশ হাজার টাকায় ধামাচাপা


গুইমারা প্রতিনিধি:
খাগড়াছড়ির গুইমারায় কংজ মগের মেয়ে আপ্রুমা মারমাকে ধর্ষণের কারণে ৩ সন্তানের জনক নিজাম উদ্দীন নামে একজন স্থানীয়দের হাতে আটক হয়েছে। পরে ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়া হয়েছে।

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় গুইমারা মুসলিমপাড় এলাকায় মৃত মনিমাঝির ছেলে কংজমগের মেয়েকে ধর্ষণ করার চেষ্টাকালে স্থানীয় উপজাতি যুবকরা পোশাকহীন ভাবে আটক করে বেঁধে তারা স্থানীয় মেম্বার নুরুল ইসলাম, মমিন সর্দার পপুল্য মাষ্টারকে খবর দেয়।

পরে গুইমারা উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আওলাদ হোসেন বাদলসহ স্থানীয় মেম্বার নুর ইসলাম বহু লোকজন নিয়ে মেয়ের বাড়িতে তাৎক্ষণিকভাবে লিখিত অঙ্গীকারের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে ধামাচাপা দিয়ে দেয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিজাম উদ্দীন বিএনপির ওয়ার্ড নেতা মাঝে উপজেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার জন্য লবিং চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক বনে যায়।
পরে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি বিষয়টি আঁচ করতে পেরে তার কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি ঘোষণা দেন বলে দলীয় সূত্রে জানা যায়। তবে তাকে কোন বহিস্কার করা হয়নি। এতে এলাকায় চরম ক্ষোভ ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া বিদ্যমান রয়েছে।

জানা যায়, গত গুইমারা ইউপি নির্বাচনে মুসলিম পাড়া ওয়ার্ড নির্বাচনে মেম্বার নির্বাচনও করেছে।

এবিষয়ে গুইমারা উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আওলাদ হোসেন বাদল বলন, নিজামকে পাহাড়ি বাড়িতে বেঁধে রেখেছে শুনে স্থানীয়দের সাথে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। পরে সামাজিক বিচারে দর্শকের ভূমিকায় ছিলাম। তবে সে দলের কোন পদে আছে আমরা দেখবো তার বিষয়ে দল সিদ্ধান্ত নেবে মর্মে তিনি জানান।
স্থানীয় কারবারী কান্দী মারমা উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, নিজাম মেয়েটাকে রেপ করেছে এটা আমাদের কাছে স্বীকার করেছে। তাই মেয়েটাকে শুদ্ধ করতে ঠাকুর বানাতে হবে, এলাকার লোকজনকে খাওয়াতে হবে। এজন্য ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

স্থানীয় মেম্বার নুরুল ইসলাম উপস্থিত সাংবাদিকদের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এলাকার স্বার্থে আমরা সবাই মিলে জরিমানার মাধ্যমে ঘটনার সমাধান করেছি বলে বিচারের রায়ের কপি সাংবাদিকদের হাতে দেন।

এবিষয়ে উপজেলা বিএনপির সভাপতি বলেন, নিজ অপরাধের দায় ভার ব্যক্তি নিজেকেই নিতে হবে। তবে ওয়ার্ড যুবদলের নিস্ক্রিয় সভাপতি হিসেবে তার বিষয়ে সাংগঠনিক ভাবে ব্যবস্থা নেবেন বলে তিনি জানান।

তবে বার বার চেষ্টা করেও ঘটনার মূলহোতা নিজামের সাথে কোন যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *