গুইমারায় চোলাই মদসহ আটক দুই নারী


গুইমারা প্রতিনিধি:
খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলার রামছু বাজারের মূখে মেইন রোডে চট্রগ্রাম গামী বাস থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চোলাই মদসহ দুই নারী সদস্যকে আটক করা হয়েছে ।

সোমবার বিকাল ৫ ঘটিকার সময়ে ১১ লিটার চোলাই মদসহ গুইমারা থানার এস আই মশিউরের নেতৃত্বে দীর্ঘ সময় সংগীয় ফোর্স সহ ফাদ পেতে এই মদ ব্যবসায়ীদের আটক করেন বলে জানা যায়।

আটককৃত উম্মে হাবিবা (১৯) স্বামী. মনু মিযা ড্রাইভার, ডোলপাড়া, সামবল বাজার, বাশখালী চট্রগ্রাম ও জোৎস্না বেগম (২২) স্বামী আবুল কালাম সাতকানিয়া এরা দীর্ঘ দিন যাবত গুইমারা থেকে মদ কিনে চট্রগ্রামে নিয়ে ব্যবসা করছেন বলে জানাযায়। ইতিপূর্বে গুইমারা থানায় আরো একবার ৬৪ বোতল চোলাই মদ নিয়ে আটক হয়েছিলেন, বর্তমানে ঐ মামলায় জামিনে আছেন। নারী হ্ওয়ায় নিজেদের ছলনার আশ্রয় নিয়ে উপজাতি গ্রাম থেকে এসব চোলাই মদ কিনে শহরে নিয়ে ব্যবসা করেন।

এবিষয়ে গুইমারা থানার এস আই মশিউরের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, শহর থেকে এসে বাংগালী নারীরা পাহাড়ে যদি এভাবে ছদ্ম বেশেরে মাধ্যমে মাদক ব্যবসা করতে চায় তাহলে পাহাড়ে নিরাপত্তার নিশ্চিত করাতো কঠিন হযে পড়বে, এই গুইমারায় উপজেলার যুব সমাজকে রক্ষা করার লক্ষে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবন কারীদের কোন ধরনের ছাড় হবে না। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহাদাত হোসেন টিটু বলেন, মাদক যুব সমাজকে ধবংস করছে। আমি যতক্ষণ এই গুইমারা থানায় দায়িত্বে আছি মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবন কারীদের বিষয়ে আমাদের এধরনের অভিযান সব সময়ে অব্যাহত থাকবে। মাদক মুক্ত গুইমারাই আমাদের লক্ষ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *