গুইমারায় অবৈধ দুইটি  ইট ভাটার মালিকদের জরিমানা, ভাটাগুলো বন্ধের দাবি


গুইমারা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির গুইমারায় অবৈধভাবে স্থাপিত দুইটি ইট ভাটার মালিকদের আলাদা আলাদা ভাবে জরিমানা  করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ এপ্রিল) সকালে এ রায় ঘোষনা করেন গুইমারা  উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব পঙ্কজ বড়ুয়া ।

আমতলী পাড়া  এলাকায় অনুমোদন বিহীন অবৈধ ইটভাটা ‘ফোর স্টারকে’ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জেলা প্রশাসকের অনুমোদন ছাড়া ইট ভাটা স্থাপন এবং কাঠ পোড়ানোসহ বিভিন্ন অপরাধে ৩৫,০০০/-(পঁয়ত্রিশ  হাজার টাকা) অর্থদণ্ড আরোপ করা হয়।

একই ভাবে গুইমারা উপজেলাধীন বাইল্যাছড়ি এলাকায় অনুমোদনবিহীন অবৈধ ইটভাটা  মেসার্স ‘কে সি ব্রিক্স’ নামক ইটভাটাকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ।

জেলা প্রশাসকের অনুমোদন ছাড়া ভাটা স্থাপন এবং কাঠ পোড়ানোসহ বিভিন্ন অপরাধে ৫০,০০০/-(পঞ্চাশ হাজার টাকা) অর্থদন্ড আরোপ করা হয়।

অভিযানে দুইটি ইট ভাটা থেকে ৮৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। যা ডিসিআর তাৎক্ষণিক আদায় ও করা হয়েছে বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানান ।

এ বিষয়ে অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পঙ্কজ বড়ুয়া বলেন,  ইট ভাটায় কাঠ পোড়ানো সম্পূর্ণ অবৈধ। তাই তাদের ‘ইট প্রস্তুত করাও অবৈধ।

ইট ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) ২০১৩ আইন’ এর (৪) ধারায় একজনকে  ৩৫ হাজার এবং অন্যজনকে  ৫০ হাজার মোট ৮৫ হাজার টাকা দুইটি ইট ভাটাকে প্রাথমিক ভাবে জরিমানা করা হয়েছে এবং সেই সাথে শেষ বারের মত সর্তক ও করা হয়েছে  যাতে ভবিষ্যতে আইন লঙ্গন করে কোন ইট ভাটা স্থাপন  করা না  হয়।

এ সময়ে অভিযানে গুইমারা থানার এস আই শহীদুলসহ পুলিশ সদস্যগণ সহযোগিতা প্রদান করেন।

গুইমারা বাইল্যছড়ি এলাকার স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, ইটভাটার মালিক কামাল সওদাগর সরকারি অনুমোদন ছাড়া ইটভাটাটি তাদের এলাকায় স্থাপন করেন।

তার এই ইটভাটায় পার্বত্য  সন্ত্রসীরা গুলি ছুড়ার অভিযোগ ও করেছেন স্থানীয়রা। তাই তারা অভিলম্বে গুইমারা বাইল্যছড়ির  ইটভাটাটি বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসক সহ সংশ্লীষ্ট প্রশাসনের প্রতি বিনীত অনুরোধ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *