খাগড়াছড়িতে ৭০৯ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়েছে জেলা পরিষদ


নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে খাগড়াছড়িতে ৭০৯ জন গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে ৩০ লাখ টাকার বৃত্তি এবং সনদপত্র বিতরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ মার্চ) দুপুরে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে খাগড়াছড়ি অফিসার্স ক্লাব অডিটরিয়ামে এ বৃত্তি এবং সনদপত্র বিতরণ করা হয়।

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আভ্যন্তরীন উদ্ভাস্ত পুনর্বাসন বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি।

এসময় প্রধান অতিথি বলেন, মানসম্মত শিক্ষার মাধ্যমে আগামী প্রজন্মকে সু-নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষকদের পাশাপাশি অভিভাবকদের ভূমিকা রাখাতে হবে।

তিনি বলেন,  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাহাড়ের মানুষকে সম্পদে পরিণত করতে শিক্ষাসহ নানা ক্ষেত্রে পদক্ষেপ নিয়েছে। যার সু-ফল মানুষ পেতে শুরু করেছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ লে.কর্ণেল মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল সাদিক, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো. রাশেদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার আলী আহমেদ খান ও জেলা পরিষদ সদস্য মংক্যচিং চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, খাগড়াছড়ি জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সাধন কুমার চাকমা, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফাতেমা মেহের ইয়াসমিন, ৪র্থ শ্রেনীতে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুইমারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবীন্দ্র কুমার নাগ, ৭ম শ্রেনীতে জেলা পর্যায়ে ১ম স্থান অধিকারী মাটিরাঙা মিউনিসিপ্যাল হাই স্কুলের শিক্ষার্থী নুসরাত-ই-ইসলাম ও ৪র্থ শ্রেনীতে জেলা পর্যায়ে ১ম স্থান অধিকারী দীঘিনালার ছোট মেরুং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো. আমিনুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে জেলার বিভিন্ন বিদ্যালয় অধ্যয়নরত ৪র্থ ও ৭ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী ছাড়াও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৮ জনকে ৬ হাজার টাকা, ডিগ্রী পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের ৩৭ জনকে ৫ হাজার টাকা এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের ৫৭ জন শিক্ষার্থী ৪ হাজার টাকা করে বৃত্তি ও সনদপত্র দেওয়া হয়।

এ অনুষ্ঠানে ৭ম শ্রেনীতে প্রথম স্থান অধিকারীকে ২০ হাজার টাকা,দ্বিতীয় স্থান অধিকারীকে ১৫ হাজার টাকা ও তৃতীয় স্থান অধিকারীকে ১২ হাজার টাকা ও সনদপত্র দেওয়া হয়। এছাড়া ৪র্থ ও ৭ শ্রেনীতে ট্যালেন্টপুল ও সাধারন বৃত্তি প্রাপ্তদেরও বৃত্তি দেওয়া হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *