খাগড়াছড়িতে সিরিজ বোমা হামলার ঘটনায় ১১ জেএমবি সদস্যের বিরুদ্ধে তিনজনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ


নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়িতে সিরিজ বোমা হামলার ঘটনায় নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি’র) ১১ সদস্যদের বিরুদ্ধে আরও তিন জনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রত্নেশ্বর ভট্টাচর্য্য’র আদালতে এ স্বাক্ষ্য নেওয়া হয়। স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামীদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

এ সময় আদালতে হাজির ছিলেন, জেএমবি’র চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমান্ডার আরিফুল ইসলাম ওরফে নাসির, মঞ্জু মিয়া, রুহুল আমীন(১) রুহুল আমীন(২), মো. ইসমাইল হোসেন, ফারুক মিয়া, আইয়ুব আলী ও শহিদুল ইসলাম এবং জামিনে থাকা এমদাদুল হক মাষ্টার, হাসান আল মামুন ও আব্দুল করিম।

খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর বিধান কানুনগো জানান, আগামী ৯ আগস্ট মামলার পরবর্তি স্বাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করা হয়েছে। এ নিয়ে ৬জনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ করা হলো। গত ৮ জুন আরও তিনজনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। বুধবার আদালত প্রবৃতি কুমার চাকমা, আব্দুল জব্বার ও নুরুল আলমের স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সারা দেশের ন্যায় খাগড়াছড়ি আদালত প্রাঙ্গনসহ ৪ স্থানে বোমা বিস্ফোরন ঘটে। এ ঘটনায় খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার ফাতেমা নগর এলাকা থেকে জেএমবি’র চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমান্ডার আরিফুল ইসলাম ওরফে নাসিরকে আটক করা হলে বেরিয়ে আসে সারা দেশে সিরিজ বোমা হামলার চাঞ্চল্যকর তথ্য। একে একে ধরা পড়ে শায়খ আব্দুর রহমান ও সিদ্দিকুর রহমার ওরফে বাংলা ভাইসহ জেএমবি’র শীর্ষ নেতারা। ইতিমধ্যে সিরিজ বোমা হামলার মামলার আসামীদের মধ্যে অণ্যতম দুই আসামী শায়খ আব্দুর রহমান ও সিদ্দিকুর রহমার ওরফে বাংলা ভাইকে অপর মামলায় ফাঁসির আদেশ কার্যকর করা হয়েছে।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *