খাগড়াছড়িতে পুলিশের অভিযান গ্রেফতার আতঙ্ক


 

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি জেলায় চলছে পুলিশের বিশেষ অভিযান। গ্রেফতার আতঙ্কে রয়েছে জেলা উপজেলা সহ প্রত্যন্ত অঞ্চলের বিএনপির নেতাকর্মীরা। গ্রেফতার এড়াতে গৃহত্যাগ করেছে কয়েক হাজার নেতাকর্মী দাবি জেলা বিএনপির।

গত সোমবার(৫ফেব্রুয়ারি) রাতে চলা পুলিশের অভিযানে বিভিন্ন উপজেলা থেকে আটক করা হয়েছে ২১জন বিএনপির নেতাকর্মী।

আটককৃত বিএনপি নেতাকর্মীদের মঙ্গলবার(৬ফেব্রুয়ারি) আদালতে প্রেরণ করা হয়। আদালত ১০জনকে  জামিন ও বাকিদেরকে কারাগারে প্রেরণ করে। এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে দাবি পুলিশের।

দেশব্যাপী বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমন করতে সরকারের নির্দেশে পুলিশ নিরীহ নেতাকর্মীদের আটক করছে। সেই ধারাবাহিকতায় আতঙ্ক সৃষ্টি করে শান্ত পরিবেশ নষ্ট করতে নিরপরাধ নেতাকর্মীদের পুলিশ হয়রানি করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতারা।

নিরপরাধ নেতাকর্মীদের পুলিশ কর্তৃক আটক করে হয়রানির নিন্দা জানিয়েছেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য ওয়াদুদ ভূঁইয়া। হয়রানি বন্ধ ও আটককৃত নেতাকর্মীদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন তিনি। পুলিশ দিয়ে নেতাকর্মীদের নির্যাতন করে আন্দোলন বন্ধ করার যে স্বপ্ন দেখছে এ সরকার তা সফল হবেনা বলে জানান ওয়াদুদ ভূঁইয়া।

গ্রেফতারী পরোয়ানা ছাড়া বিএনপির নেতা-কর্মীদের বাড়ি-ঘরে তল্লাশী ও গণগ্রেফতার চালাচ্ছে পুলিশ। আতঙ্কে পালিয়ে বেড়াচ্ছে নেতাকর্মীরা। আটককৃতদের বিভিন্ন মামলায় জরিয়ে দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এম এন আবছার।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গুইমারা উপজেলার শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক অনিল সরকার, যুব দলের সদস্য আমজাদ ও হাফছড়ি ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোতাচ্ছের হোসেন কে পুলিশ আটক করেছে জানান এম এন আবছার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *