কোটা বহালের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ


ডেস্ক রিপোর্ট:

সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ কোটা বহালের দাবিতে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কে আগুন দিয়ে অবরোধ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের সংগঠন। অপরদিকে ৫ শতাংশ কোটা বহালের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ি রবিবার(৭ অক্টোবর) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নম্বর গেট এলাকায় দুপুর সাড়ে ১২ টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত মহাসড়কে অবরোধ ও অবস্থান কর্মসূচি করে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম সংগঠনগুলোর সম্মিলিত জোট মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

অন্যদিকে সকাল সাড়ে ১১টা থেকে চট্টগ্রাম নগরীর দুই নম্বর গেইটে চট্টগ্রাম নগরীর দুই নম্বর গেইটে চাকরিতে ৫ শতাংশ কোটা বহালের দাবিতে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ঐক্য পরিষদের ব্যানারে সড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা

চট্টগ্রাম- রাঙ্গামাটি সড়ক অবরোধ করায় চট্টগ্রাম নগর, রাঙ্গামাটি, হাটহাজারী ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিভিন্ন রুটের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী ও হাটহাজারী সার্কেল এএসপি আবদুল্লাহ আল মাসুম তাঁদের অবস্থান থেকে গোপনীয় প্রতিবেদনের মাধ্যমে কোটা বহালের এ যৌক্তিক দাবি রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌছে দেওয়া হবে এমন আশ্বাস দিলে এক ঘন্টা পর অবস্থান কর্মসূচি ত্যাগ করেন তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনের মুখপাত্র রাশেদুজ্জামান শুভ বলেন, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে কোটা বাতিল করে রাষ্ট্রের বীরসন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান করা হয়েছে। এর মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তির এজেন্ডা বাস্তবায়িত হয়েছে। তাই আমরা কোটা বহাল চাই।

অপরদিকে চবি সমাজতত্ত্ব বিভাগের ২য় বর্ষের প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী গোলাম কিবরিয়া বলেন, আমরা ৫ শতাংশ প্রতিবন্ধী কোটার জন্য আন্দোলন করতেছি। আমরা অনেক সংগ্রাম করে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত এসেছি। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে আমরা কি করব? আমরা অন্য সকল শিক্ষার্থীর মত প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারব না। আমাদের জন্য কোটা রাখতে হবে।

অবরোধ ও অবস্থান কর্মসূচি শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ’ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরো পয়েন্ট প্রদক্ষিণ করে রেলস্টেশনে গিয়ে দুপুর দুইটার দিকে এ কর্মসূচি শেষ করে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *