কুতুবদিয়া সরকারি গার্লস হাই স্কুলের শিক্ষকের উপর হামলার চেষ্টা


 

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কুতুবদিয়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বিএসসি শিক্ষকের উপর হামলার চেষ্টা করা হয়েছে। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সজল দাশ বলেন, সহকারী বিএসসি শিক্ষক মাসুদুল হাসান শনিবার রাত ১০টার দিকে অটো রিকসা যোগে নিজবাড়ি বড়ঘোপ মুরালিয়ায় ফেরার পথে বড়ঘোপ মগডেইল এলাকায় পৌঁছলে কতিপয় দুষ্কৃতিকারী তার উপর হামলার চেষ্টা চালিয়ে ধাওয়া করে। এসময় তিনি দ্রুত নিরাপদ স্থানে গেলে দুষ্কৃতিকারীরা পেছনে ফিরে আসে। তবে শিক্ষক মাসুদুল হাসান মারাত্মক কোন আহত হননি বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা জিগারুন নাহার জানান।

উল্লেখ্য, শিক্ষক মাসুদুল বড়ঘোপ ইউনিয়ন আ’লীগের সাবেক সভাপতি মরহুম শফি আলমের পুত্র।

এ দিকে সদ্য সমাপ্ত এসএসসি পরীক্ষার হলে গার্ড দেয়ার চাপাচাপির জের ধরে কুতুবদিয়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র, ধূরুং হাই স্কুল কেন্দ্র ও কুতুবদিয়া হাই স্কুল ভেন্যুতে পরীক্ষার্থী, অভিভাবক, কতিপয় শিক্ষকদের মাঝে চাপা বিরোধ ছিল। যে কারণে কুতুবদিয়া হাই স্কুল ভেন্যুতে পরীক্ষা শেষে এক গত বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষক নাজেহাল হন ছাত্রদের হাতে। একই দিন এর জেরে কুতুবদিয়া হাই স্কুলের এক শিক্ষক ধূরুং কেন্দ্রে পরীক্ষার পর ছাত্রদের হাতে নাজেহাল হন। এ নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে একে অপরকে দোষারোপ, ক্ষোভ নানা কারণে প্রকাশ্যে রূপ নিয়ে ৩জন শিক্ষককে নাজেহাল হতে হয়েছে।

কুতুবদিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক বলেন, পরীক্ষার হলে সরকারি বিধি অনুযায়ী নকল মুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা নিতে কেন্দ্র যে কোন পদক্ষেপ নিতে পারেন। এটা নিয়ে ছাত্র- শিক্ষক কিংবা অপর শিক্ষক বা প্রতিষ্ঠানে রেশারেশি থাকা ভাল না।

কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ দিদারুল ফেরদাউস বলেন, শেষ পরীক্ষার দিন কোন অপ্রিতিকর ঘটনা হতে পারে এমন পরিস্থিতির মোকাবেলায়  পুলিশী নজরদারি ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *