কুতুবদিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডে ১৫ পদে ১৩টিই শূন্য


 

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডে (পাউবো) মারাত্বক জনবল সংকট চলছে। দীর্ঘদিন ধরে বেড়িবাঁধে নির্মাণ, সংস্কার কাজে তদারকি চলছে জোড়াতালি দিয়ে।

স্থানীয় অফিস সূত্র জানায়, অফিসে ১৫টি পদের মধ্যে আছে শুধু দু’জন। বাকি ১৩টি পদই শূন্য বছরের পর বছর। গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরটিতে শুধুমাত্র ২জন শাখা কর্মকর্তা আছেন। প্রধান পদ উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নেই। কর্মসহকারীর ৪টি পদে কেউ নেই। সার্ভেয়ারের ২ পদে কেউ নেই। অফিস সহকারীর পদ ২টি শূন্য। হিসাব করণীক নেই। ২জন অফিস সহায়কের কেউ নেই, গার্ডও নেই। সব মিলিয়ে ১৫ পদে ১৩টিই খালী।

অপর দিকে উপজেলায় বেড়িবাঁধে ৯৩ কোটি টাকার সাড়ে ৪ কিলোমিটার ব্লক, আড়াই কিলোমিটার মাটির কাজ, ৯ কিরোমিটার মাটির বাঁধ নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে গত বছর ১৭ ডিসেম্বরে। পূর্ব তাবালের চর, পশ্চিম তাবালের চর, মুরালিয়া, অমজাখালী, পেয়ারা কাটা, আকবর বলী পাড়া ঘাট, কাইছা পাড়া, চুল্লার পাড়া, পিলার পাড়া, কাহার পাড়ায় কাজ চলছে। আগামী অক্টোবরে কাজ শেষ করার কথা থাকলেও এ পর্যন্ত মাত্র ২০ ভাগ শেষ হয়েছে। বর্ষা মৌসুম এলেই আবারও বেকায়দায় পড়বে দ্বীপের প্রায় দেড় লাখ মানুষ।

এ ছাড়া গত জানুয়ারিতে কাহার পাড়া, পশ্চিম তাবালের চর পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার রিপেয়ারিং কাজ চলছে। আগামী জুনে এটি শেষ করার কথা। ১১টি পয়েন্টে এ কাজ চলছে ৩ কোটি টাকার। বিশাল উন্নয়ন কাজের তদারকির জন্য পর্যাপ্ত জনবল নেই পানি উন্নয়ন বোর্ডে। উপজেলার দু’প্রান্তে কাজ দেখভাল করতে ‘অন্ধের যষ্ঠি” ২ শাখা কর্মকতা এক প্রান্তে গেলে অপর প্রান্তে সেদিন যাওয়া সম্ভব হয়না। যাতায়াত দূরহ এলাকায় আরও ভোগান্তি বেড়ে যায়। সরকারের বিরাট উন্নয়ন কাজ চলমান অবস্থায় চরম জনবল সংকটে কাবু পাউবো।

স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের এএস ও এলটন চাকমা ও মো. সাহাব উদ্দিন বলেন, অফিসে জনবল মারাত্বক সংকটে। ১৫টি পদে তারা ২ জন ছাড়া আর কেউ নেই। গুরুত্বপূর্ণ স্থান ও চলমান বিশাল বেড়িবাঁধ নির্মাণ ও সংস্কার কাজ তদারকিতে তারা হিমশিম খাচ্ছেন। বার বার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি জানালেও অজ্ঞাত কারণে জনবল দেয়া হচ্ছেনা। চলমান কাজেও ব্যঘাত ঘটছে বলে তারা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *