কুতুবদিয়ায় পর্যটন বিকাশে শরীক হচ্ছে কউক


কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কুতুবদিয়ায় পর্যটন বিকাশে মেগা প্রকল্পে শরীক হচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (কউক)। ইতি মধ্যে নানা দিক নিয়ে কাজ করছেন উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা। ন্যাচারাল পার্ক, শহীদ মিনার নিরাপত্তা বেষ্টনী, আলোক সজ্জা, জীববৈচিত্রের মুরাল তৈরির কাজ প্রায় অর্ধেকটা সম্পন্ন। আকর্ষনীয় স্পটে পরিণত হচ্ছে দ্বীপ কুতুবদিয়া।

আর এ দ্বীপকে পরিষ্কার–পরিচ্ছন্ন পরিবেশে গড়ে তুলতে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যে উপজেলা সদরে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অফিস-স্পটে ৪০টি আকর্ষনীয় ডাস্টবিন বসিয়েছে কউক। থানার মোড়ে পানির ফোয়ারা নির্মাণের পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য নির্মাণের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এটি দ্রুত বাস্তবায়নে কউক এর প্রকৌশলী টিম কাজ করছে। সম্ভাব্য স্থান আরও আকর্ষনীয় করে তুলতে প্রয়োনীয় পদক্ষেপ নিবেন তারা।

কউক প্রকৌশলী সালাহ উদ্দিন জানান, কুতুবদিয়ায় পর্যটন বিকাশে মেগা প্রকল্পের অংশ বাস্তবায়নে কউক যথাসাধ্য কাজ করে যাবে। দ্বীপকে একটি আধুনিক মানের পর্যায়ে নিয়ে যেতে সব ধরণের সহযোগিতার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। বিশেষ করে পরিচ্ছন্নতার মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ ছাড়াও পানির ফোয়ারা নির্মাণের পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য নির্মাণ করার কথাও বলেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা সুজন চৌধুরী বলেন, কুতুবদিয়াকে একটা রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে এবং পর্যটন বিকাশে মেগা প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এ প্রকল্পে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নিরাপত্তা, আলোকজ্জল, জীববৈচিত্রের মুরাল তৈরির কাজ প্রায় শেষের দিকে। পার্ক নির্মাণসহ আনুসাঙ্গিক বিষয়গুলো স্থাপনে জোর প্রচেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান। আগামীতে পর্যটক আকৃষ্ট করতে আরও নতুন নতুন কাজে হাত দেয়া হলে এর প্রসার বেড়ে যাবে বলেও তিনি মনে করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *