কুতুবদিয়ায় চালের দাম কেজিতে বেড়েছে ১১ টাকা


17794-rcieaamr-copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় কয়েক দফায় চালের দাম বেড়েছে প্রতি কেজিতে ১১ টাকা। মাত্র দু‘সপ্তাহের ব্যবধানে এই দামের বিরাট উর্ধ্বগতি বলে ব্যবসায়িরা জানান। সাধারণ মানের ইরি (পুরান) চালের দাম ১৫ দিন আগেও ছিল প্রতি কেজি ২২ টাকা। যা দীর্ঘ দিন স্থিতিশীল ছিল। বিনা কারণেই হঠাৎ ২২ থেকে ২৫, ২৮ এবং শেষে ৩৩ টাকায় উঠেছে। কিছুটা ভাল মানের মধ্যে বেতি চালের কেজি ছিল ২৬ টাকা। এখন তা বেড়ে ৩৬ টাকা প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে খুচরা চালের দোকানগুলোতে।

ধুরুং বাজারে জীপ ষ্টেশনের চাল ব্যবসায়ী আব্দুল মতলব জানান, চালের দাম চট্টগ্রাম থেকে বেশি দামেই কিনতে হচ্ছে। কি কারণে মূল্য বৃদ্ধি তার খবর জানেন না। সাধারণ মানের সাধারণ ক্রেতারা প্রতি দিন ইরি চাল খরিদ করে থাকেন। কয়েক দফায় তা বেড়ে এখন ২২ টাকার চাল দাড়িয়েছে ৩৩ টাকায়। বেতি চালেও বেড়েছে ৯ টাকা কেজিতে।

উপজেলা সদর বড়ঘোপ হাসপাতাল গেইটের হাজী কালাম ষ্টোরের শফি আলম বলেন, গত ১৫ দিনের ব্যবধানে কয়েক দফায় সাধারণ ইরি (পুরান) চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ১১ টাকা। একই ভাবে বেতি চালের কেজিতে বেড়েছে ৮-৯ টাকা।

চালের দামের উর্ধ্বগতির কারণ কেউ বলতে পারছেন না। ধুরুং বাজারের ভাই ভাই হোটেলের মালিক নুরুল আলম সওদাগর বলেন, প্রতি বস্তায় চালের পাইকারি দাম বেড়েছে ৫-৬‘শ টাকা। এভাবে আর কয়েক দিন চললে ভাতের দামও বাড়াতে হবে হোটেলে। সবাই বলছে দাম বাড়া। উপজেলায় ১০ টাকা কেজিতে সরকারি ‘খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি’র চাল দেয়া শুরু হলেও দু‘তৃতীয়াংশ মানুষ কেজি প্রতি ১০-১১ টাকা বেশি দামে চাল কিনছে। চালের ঘাটতি না থাকলেও অজ্ঞাত কারণেই দাম বেড়েই চলেছে চালের বাজার।

এদিকে সাধারণ ভোক্তারাও এই মূল্য বৃদ্ধির কারণ খুঁজে পাচ্ছেনা। এক দিকে ১০ টাকা কেজি চাল, অন্য দিকে কেনা চালে কেজিতে ১০-১১ টাকা বেশি লাগায় হাঁপিয়ে উঠেছে দ্বীপের মানুষ।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *