কুতুবদিয়ায় অতি বৃষ্টিতে বিপর্যয়ে টমেটো চাষ, বিপাকে চাষিরা


tometo-copy

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় চলতি টমেটো চাষের মওসুমে ফুল আসার শুরুতেই মরে যাচ্ছে গাছ। ফলে অধিকাংশ ক্ষেতে টমেটো উৎপাদনে বিপর্যয়ের আশঙ্কা করছেন চাষিরা। উপজেলার ৩ ইউনিয়নে বিশেষ করে আলী আকবর ডেইল, বড়ঘোপ, কৈয়ারবিল ইউনিয়নে টমেটো চাষ হয়ে থাকে। এছাড়া দক্ষিণ ধুরুং ইউনিয়নের আলী ফকির ডেইলেও কিছু টমেটোর চাষ হয়ে থাকে। সব মিলিয়ে এ মওসুমে অন্তত: ১০০ হেক্টর জমিতে টমেটো চাষ হচ্ছে বলে উপজেলা কৃষি অফিস জানিয়েছে।

সবচেয়ে বেশি টমেটো চাষের এলাকা আলী আকবর ডেইল নাছিয়ার পাড়া, চৌধুরী পাড়া, সিকদার পাড়া, সন্দিপী পাড়ায় রয়েছে ৫ শতাধিক ছোট-বড় টমেটো ক্ষেত। এসব ক্ষেতের অধিকাংশ গাছ মরে যাচ্ছে ফুল আসার আগেই। নাছিয়ার পাড়ার মাঠের টমেটো চাষি মৌং জয়নাল আবেদীন, আজিজুল হক, মৌং আছাব উদ্দিন, আ: কদ্দুছ বলেন, এবার মওসুমের কিছুটা আগাম টমেটো চাষ শুরু হয়েছে। প্রায় সব গাছে ফুল আসার শুরুতে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের কবলে পড়ে ক্ষেতগুলো। যে কারণে মাঠের অধিকাংশ গাছ মরে যেতে থাকে। স্থানীয় কৃষি বিভাগের পরামর্শে রোবলাল ও টার্বো ৫০ (ডব্লিউপি) নামের কীটনাশক ব্যবহার করছেন বলে তারা জানান। একই মাঠের চাষি নুরুল আবছার বলেন, ৪০ শতক জমিতে টমেটো চাষে প্রায় ৫০ হাজার টাকা খরচ পড়ে। টমেটো লাভবান চাষ হলেও এবার শুরুতেই হোঁছট খেয়েছে টমেটো চাষিরা। আগামী একমাসের মধ্যে টমেটো তোলার আশা করছেন তিনি।

চৌধুরী পাড়া মাঠের টমেটো চাষি আলমগীর, আজমগীর ও জাহেদুল বলেন, টমেটো ক্ষেতের অধিকাংশ গাছের মরণে তারা দিশেহারা। গাছের গোড়ায় মাটি দিয়েও আশানুরূপ ফল মিলছেনা। অসময়ে বৃষ্টির দরুণ তাদের ক্ষেতের এ ক্ষতির কারণ বলে মনে করেন তারা।

আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নে সরেজমিন প্ররিদর্শন শেষে দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মিজবাহ উদ্দিন বলেন, চলতি টমেটো চাষের মওসুমে অতিবৃষ্টির ফলে বেশ কয়েকটি মাঠে কিছু কিছু টমেটো গাছ মরে গেছে। মরা গাছগুলো তুলে দিলে পাশের গাছের ক্ষতি হয়না। যতটুকু ক্ষতি হয়েছে তাতে টমেটো উৎপাদনে খুব একটা প্রভাব পড়বেনা বলে তিনি মনে করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *