কাপ্তাই উপজেলাকে ভিক্ষুকমুক্ত উপজেলা ঘোষণা


কাপ্তাই প্রতিনিধি:

দেশের মধ্যে কোন ভিক্ষুক থাকবেনা। বর্তমান প্রধান মন্ত্রী দীর্ঘ ৯বছর ক্ষমতায় থেকে জনগণকে দেয়া নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়ন করে চলেছে। আগামী ২০ সালের মধ্যেই মধ্যম আয়ের দেশ হিসাবে বাংলাদেশকে ঘোষণা করা হবে।

চটগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আবদুল মান্নান বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) কাপ্তাই উপজেলায় ভিক্ষুক মুক্তকরণ কর্মসূচি কার্যক্রম ও উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নের ৩৪জন ভিক্ষুককে বিভিন্ন ভাবে স্বাবলম্বী করার উদ্দেশ্যে ভিক্ষুকমুক্ত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসাবে এসব কথা বলেন। এসময় তিনি কাপ্তাই উপজেলাকে ভিক্ষুক মুক্তকরণ উপজেলা ষোষণা করেন।

এ সময় তিনি শারীরিক প্রতিবন্ধী, বিধবা, স্বামী পরিত্যাক্ত, রোগাক্রান্তদের মধ্যে ভ্যানগাড়ী, সেলাই মেশিন, ভাসমান দোকান, নগদ অর্থ, শাড়ি, লুঙ্গি, থান কাপড়, দোকানের জন্য পান সিগারেট বিবিধ জিনিস প্রদান করা হয়।

প্রধান অতিথি বলেন, আজ যাদের ভিক্ষুক মুক্ত করণের জন্য বিভিন্ন জিনিস দেওয়া হলো কেউ যদি তা বিক্রয় করে দেয় বা পুনরায় ভিক্ষা করে তাহলে তদন্ত সাপেক্ষে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে বলে ঘোষণা করেন।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত সচিব দীপক ভট্রাচার্য, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মানজারুল মান্নান, কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুল আলম, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন।

এছাড়াও সাবেক চেয়ারম্যান অংসুইছাইন চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত বিকাশ তংচঙ্গ্যা, নুরনাহার বেগম, উপজেলার বিভিন্ন কর্মকর্তা, সকল ইউপি চেয়ারম্যানগণ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে ভিক্ষুক ইসমাইল হোসেন, শফিকুল ইসলাম, টিপু ভট্রাচার্য আনোয়ারা বেগম, সাজেদা বেগম বলেন, আমরা আর ভিক্ষাবৃত্তি করবোনা। আমরা সরকারের দেয়া জিনিস ব্যবহার করে নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে স্বাবলম্বী হব। আমরা আজ অনেক খুশি এ সকল জিনিস পেয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *