কাপ্তাই আগুনে ৫০ বাড়ি-ঘর পুড়ে ছাই, কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি


 

কাপ্তাই প্রতিনিধি:

 

কাপ্তাই রাইখালীস্থ নারায়গিরি দূর্গম পাহাড়ি এলাকায়  ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী পল্লি­তে ভয়াবহু এক অগ্নিকাণ্ডে ৫০টি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

রোববার  (১৫এপ্রিল) বিকেলে কাপ্তাই শেষ সীমানার বড়পাড়া নামক এলাকায় মারমা সম্প্রদায়ের বসতিতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

বৈশাখের কাঠফাটা রোদ্রে নতুন বছরকে বরণ আর পুরাতনকে বিদায় জানাতে আনন্দ উৎসবে মাতওয়ারা  তখন হঠাৎ খবর আসে বসত বাড়িতে আগুন জ্বলছে। তখন সকলেই অঝড়ে কান্না করছে আর তাকিয়ে দেখছে। কোন কিছুই বাহির করতে পারেনি।

এলাকাবাসি জানান, কিভাবে আগুনের সুত্রপাত হয়েছে তা কেউ বলতে পারেনা। কেউ মন্তব্য করছে জুঁমের আগুন, সোলার শর্টসার্কিট, আবার কেউ বলছে ঘরের চুলা হতে এ অগ্নিপাতের ঘটনা ঘটে। তবে আগুনের কেউ কোন সঠিক তথ্য দিতে পারেনি।

এদিকে ক্ষয়ক্ষতি প্রায় কোটি টাকার বেশি হবে বলে অনেকেই মন্তব্য করেন। নারানগিরি রাইখালী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডটি দূর্গম এলাকা হওয়ার দরুন রাতে কেউ পৌঁছাতে পারেনি।

সোমবার  (১৬এপ্রিল) রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুল আলম ও কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রান সামগ্রী বিতরণ করে। এছাড়া কাপ্তাই সেনা জোন ৫আরই অধিনায়ক  লে. কর্নেল মাহামুদুল হাসান উপস্থিত হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের তিন হাজার টাকা করে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করে।

এসময় বাঙ্গাল হালিয়া ক্যাম্পকমান্ডার সিনিয়ার ওয়ারেন্ট অফিসার এমদাদুল হক ও রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান সায়ামং মারমা উপস্থিত ছিলেন।

বর্তমানে সকলেই খোলা আকাশের নিচে অবসন্থান করছে। উল্লেখ্য  ওই স্থানটি মেঠোপথ হওয়ায় কোন যান চলাচলের সড়ক নেই। পল্লিতে মোট ৯৬টি পরিবার বসবাস করে। এর মধ্যে ৫০টি বসত পুড়ে যায়।

 

নিউজটি কাপ্তাই বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *