কাইন্দাপাড়ায় নিখোঁজ ২ রোহিঙ্গা কিশোরের হাতবাঁধা লাশ উদ্ধার


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

মংডুতে নিখোঁজ ৩ রোহিঙ্গা কিশোরের মধ্যে ২ কিশোরের হাতবাঁধা গলিত লাশ উদ্ধার হয়েছে। গত রোববার (১৯ নভেম্বর) স্থানীয়রা লাশ দু’টি খালের কিনারা হতে উদ্ধার করে।

সূত্র জানিয়েছে, সপ্তাহখানেক আগে মংডুর সিকদার পাড়া ও কাইন্দাপাড়া সংলগ্ন ছনবন্যা এলাকার তিন কিশোর পাহাড়ে জ্বালানী কাঠ সংগ্রহ করতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজ করেও তাদের সন্ধান পায়নি পরিবারের সদস্যরা।

রোববার স্থানীয় কিছু ব্যক্তি নদীর পাড় দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় দু’টি লাশ দেখতে পেয়ে গ্রামে খবর দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, মৃতদেহ দু’টো একই রশিতে পিছমোড়া হাত বাঁধা ছিল। গায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। প্রত্যক্ষদর্শীদের ধারনা, হাত বাঁধার পর গলাকেটে তাদের হত্যা করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যরা এসে লাশ দু’টি সনাক্ত করতে সক্ষম হয়। তবে ৩য় কিশোরের কোন সন্ধান এখনো পায়নি এলাকাবাসী।

স্বজনদের ধারনা, স্থানীয় রাখাইন গোষ্ঠির উগ্রবাদীরা তাদের হত্যা করেছে। কেননা, রাখাইনরা রোহিঙ্গাদের যত্রতত্র হয়রানী করছে। পান থেকে চুন খষতেই মারতে যায়। রোহিঙ্গারা জ্বালানী সংগ্রহ, মাছ শিকার, ক্ষেত  খামার করলে তা রাখাইনরা সহ্য করতে পারেনা। রোহিঙ্গাদের হত্যা করাকে তারা মামুলি কাজ বলে মনে করে।

 

সূত্র: Arakan Television

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *