কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচন: সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু


কক্সবাজার প্রতিনিধি:

অবশেষে বহুল প্রত্যাশিত কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৫ জুলাই নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ১০ জুন নির্বাচন কমিশন সচিবালয় কক্সবাজার পৌরসভার তফসিল ঘোষণা করে।

নির্বাচন কমিশনের তফসিল অনুযায়ী, কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ২৪ জুন, মনোনয়ন পত্র বাছাই হবে ২৬ জুন, মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৩ জুলাই ও ভোট গ্রহন ২৫ জুলাই।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শিমুল শর্মা বলেন, কক্সবাজার পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডে ভোটার রয়েছে প্রায় ৮৩ হাজার ৭২৮ জন। ১২ ওয়ার্ডে ভোট গ্রহণের জন্য প্রাথমিকভাবে ৩৯টি কেন্দ্র নির্ধারণ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে তফসিল ঘোষণার বিষয়টি রোববার দুপুরে মুঠোফোনে নিশ্চিত করা হয়। তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনের যাবতীয় প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। সব ঠিক থাকলে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বে আগামী ২৫ জুলাই জমজমাট এক ভোটযুদ্ধ উপভোগ করবে কক্সবাজারবাসী।

পৌরবাসী জানান, ইতিমধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়েছে। বিশেষ করে বড় দুটি রাজনৈতিক দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা কোমর বেঁধে মাঠে নেমে পড়ে। তবে এখন পর্যন্ত মাঠে সবচেয়ে বেশি সরগরম দেখা গেছে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমানকে। তিনি প্রতিদিনই শহরের কোন না কোন এলাকার মসজিদে নামাজ পরবর্তী লোকজনের খোঁজ খবর নিচ্ছেন। অন্যদিকে বসে নেই আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, জাতীয়পার্টিসহ সম্ভাব্য প্রার্থীরাও।

জানা গেছে, ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগে প্রার্থী ঠিক করা নিয়ে এক ধরণের স্নায়ুযুদ্ধ চলছে। কে হবেন প্রথমবারের মত কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাচনের দলীয় প্রতীকে নৌকার মাঝি তা নিয়ে জেলা এবং কেন্দ্রেও নানা আলোচনা চলছে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে মাঠে চষে বেড়াচ্ছে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান। গেল নির্বাচনেও তিনি আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী ছিলেন।

এছাড়াও আওয়ামী লীগ থেকে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে প্রাথমিকভাবে আলোচনায় রয়েছেন বর্তমান পৌরসভার মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) মাহবুবুর রহমান, কক্সবাজার পৌরসভার চারবারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল আবছার, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রাশেদুল ইসলাম।

অতীতে কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করলেও এবার সেরকম ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে না। কারণ জামায়াত আইনগত জটিলতার কারণে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করতে পারবে না। এছাড়াও হাল সময়ে কক্সবাজারে বিএনপির সাথে জামায়াতে সম্পর্ক যাচ্ছে দোটানায়। এর ফলে প্রার্থী নিয়ে বেকায়দায় পড়তে পারে বিএনপি। তবে এখনো পর্যন্ত বিএনপির কোন প্রার্থীকে মাঠে দেখা যায়নি। তবুও বিএনপি থেকে যেসব প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন-পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাশেদ মোহাম্মদ আলী, পৌরসভার বর্তমান প্যানেল মেয়র রফিকুল ইসলাম, আরেক প্যানেল মেয়র জিসান উদ্দিন জিসান। এ ছাড়া জামায়াত থেকে একজন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। পৌরসভার গেল নির্বাচনে নির্বাচিত মেয়র সরওয়ার কামাল। সরওয়ার কামালই সব দলের প্রার্থীদের কাছে ফেক্টর হবেন বলে ভোটাররা জানান।

এছাড়া জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচন করতে পারেন জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন সিকদার।

জানাযায়, ২০১১ সালের অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন সরওয়ার কামাল। কিন্তু আইনি জটিলতায় টানা আড়াই বছর শপথ নিতে পারেননি তিনিসহ পুরো পৌর পরিষদ। এরপর শপথ নিলেও বেশিদিন ক্ষমতার মসনদ ধরে রাখতে পারেননি তিনি। হাইকোর্ট থেকে দায়িত্ব পালনে অযোগ্য ঘোষণা করার পর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সরওয়ার কামালকে মেয়রের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেন। এরপর নানা তালবাহনার মধ্যে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পান কাউন্সিলর মাহবুবুর রহমান। বর্তমানে তিনিই ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্বপালন করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *