কক্সবাজারে এক পরিবারে চারজনের সবাই লাশ


কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজার সদরের গোল দিঘির পাড় এলাকার এক বাড়ি থেকে একই পরিবারের ৪জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (১৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় তাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রঞ্জিত বড়ুয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন, সুমন চৌধুরী (৩৫), বেবী চৌধুরী (৩০), অন্তিকা চৌধুরী (১১), জ্যোতি চৌধুরী (১৩)।

ওসি রঞ্জিত বড়ুয়া জানান, দুই মেয়ে অন্তিকা ও জ্যোতি এবং স্ত্রী বেবীকে হত্যার পর হত্যাকারী সুমন নিজেই আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে বিস্তারিত খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

স্থানীয় দুলাল দাস জানান, সকাল থেকে ওই বাড়িতে কোনও মানুষের সাড়া না পেয়ে স্থানীয়দের মনে সন্দেহ জাগে। এরপর সেখানে গিয়ে দরজা ভেতর থেকে লাগানো অবস্থায় পাওয়া যায়। সারা দিন দরজা ভেতর থেকে লাগানো দেখে কৌতুহল জাগে। পরে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর ৪টি লাশ পাওয়া যায়। স্ত্রী বেবী চৌধুরী এবং দুই মেয়ে অন্তিকা ও জ্যোতি চৌধুরীর লাশ ঘরে শোয়ানো অবস্থায় ছিল। এবং সুমন চৌধুরীকে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, নিজে ফাঁসিতে ঝোলার আগে স্ত্রী ও দুই মেয়েকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে সুমন।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) একেএম ইকবাল হোসেন জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *