জীবনবাজি রেখে উপজাতীয় মেয়েদের উদ্ধার করা কাপ্তাইয়ের তিন বাঙালী যুবককে সম্বর্ধনা দিলেন দীপঙ্কর তালুকদার


12963679_1613337572321563_8957124600851367746_n

নিজস্ব প্রতিনিধি :

সংবর্ধনা দেওয়া হলো কাপ্তাইয়ে জীবনবাজি রাখা সেই সাহসী তিন বাঙালি যুবককে। বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য রবিবার তাদের সংবর্ধনা দিয়েছে রাঙ্গামাটি জেলা ছাত্রলীগ। ১৪ মার্চ বিকেলে কাপ্তাই বড়ইছড়ি কর্ণফুলী নুরুল হুদা কাদেরীয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ছুটির পর বাড়ি ফেরার পথে নৌকা উল্টে সাঁতার না জানা ৮ মারমা ছাত্রী যখন ডুবে যাচ্ছিল, তাদের আর্ত চিৎকারে দুই পড়ে থাকা কেউ যখন এগিয়ে আসছিলো না তখনই জীবনবাজী রেখে কাপ্তাই নদী থেকে উদ্ধার করেন এই তিন বাঙালী যুবক, এরা  তিনজন ছাত্রলীগ নেতা। এরই স্বীকৃতিস্বরূপ তাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।

রোববার বিকেলে রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীগের দলীয় কার্যালয়ে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সংবর্ধিত নেতা হলেন, কাপ্তাই উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এ আর লিমন, কর্ণফুলি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পবন পাল শ্রাবণ ও উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা নাসির উল্লাহ।


আরও পড়ুন

নিজের জীবন বাজি রেখে ৯ পাহাড়ি মেয়ের জীবন বাঁচাল এক বাঙালি যুবক

বাঙালি ভাইয়েরা জীবন বাজি রেখে উদ্ধার না করলে আমরা মরেই যেতাম- ৮ মারমা ছাত্রী


জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইফুল আলম রাশেদের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীংপকর তালুকার। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাঙ্গামাটি পৌর-আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজি সোলায়মান চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মনছুর আলী, জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাইদুল। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন রাঙ্গামাটি জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা।

এতে আরো বক্তব্য রাখেন, কাপ্তাই উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সুমন, লংগদু উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জিয়াউল হক, রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম, রাজস্থলী উপজেলা ছাত্রলীগের অংসুই চিং মারমা বিজয়, নানিয়রচর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন দাশ, কাউখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সজীব দত্ত, রাঙ্গামাটি পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন। এতে দশ উপজেলা, কলেজ, শহর ও ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দীপংকর তালুকদার বলেন, ছাত্রলীগের ভাল খবরগুলো কখনো পত্র-পত্রিকায় আসে না। একটু খারাপ করলেই খবরগুলো বিশাল করে তুলে ধরা হয়। কাপ্তাই উপজেলা ছাত্রলীগের ছেলেরা যে সাহসী ভূমিকা রেখেছে তা শুধু ছাত্রলীগের গর্ব না এটা গোটা আওয়ামী পরিবারের গর্ব। ছাত্রলীগ ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত সকল সাহসী কাজে ছাত্রলীগের ভূমিকা রয়েছে। তিনি আরো বলেন, যেখানে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রদের হাতে বই তুলে দিয়েছেন, সেখানে অন্যদিকে বিএনপির নেত্রী আওয়ামীলীগকে ঘায়েল করতে ছাত্রদলই যথেষ্ট বলে মন্তব্য করেন। তাই সকলকে বুঝতে হবে কারা ছাত্রদের জন্য কাজ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *