উন্নয়নের মাধ্যমে পাহাড়ের দারিদ্রতাকে যাদুঘরে পাঠানো হবে: মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের


000-copy

নিজস্ব প্রতিবেদক:

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে’ মন্তব্য করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন এ সরকারের আমলেই পার্বত্য শান্তিচুক্তির প্রতিটি ধারা অক্ষরে অক্ষরে বাস্তবায়ন করা হবে। পাহাড়ী জনপদের মানুষকে পিছিয়ে থাকতে দেয়া হবে না। অন্ধকারে আলো অবশ্যই আসবে। চলাচলের জন্য রাস্তা হবে, চলতে থাকবে উন্নয়ন প্রক্রিয়া। উন্নয়নের মাধ্যমে পার্বত্য এলাকার দারিদ্রতাকে যাদুঘরে পাঠানো হবে।

মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় খাগড়াছড়ি রামগড়ে সংবর্ধনা জনসমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী আরও বলেন, খাগড়াছড়ির সবকটি রাস্তার উন্নয়নের কাজ প্রায় শেষ। শুধু মাত্র মহালছড়ি-জালিয়াপাড়া সড়ক বাকী আছে। এ কাজও দ্রুত করা হবে। এর মধ্যে খাগড়াছড়িতে ১৮ ব্রীজের নির্মাণ কাজ শেষ, ৩৪টি ব্রীজের কাজ চলছে। পাহাড়ের উন্নয়নের জন্য সরকার বদ্ধ পরিকর।

এ সময় মন্ত্রী বিএনপির কঠোর সমালোচনা করে বলেন, মানুষ পোড়ানোর রাজনীতি করেও ক্ষমতায় আসতে না পেরে বিএনপি এখন বিদেশীদের কাছে নালিশের রাজনীতি করছে। তবে নিজ দলের নেতা কর্মীদেরও বলতে ছাড় দেননি ওভায়দুল কাদের। তিনি বলেন, কলহ-কোন্দল করে দলে থাকার কারও অধিকার নেই। নির্বাচন পরবর্তী দলের কোন্দল সৃষ্টি করলে আর ক্ষমা করা হবে না।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে খাগড়াছড়ির সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য দিপংকর তালুকদার, রাঙ্গামাটির মহিলা সাংসদ ফিরোজা বেগম চিনু, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যন কংজরী চৌধুরী প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

জন সমাবেশ শেষে রামগড়ের উন্নয়নমূলক কাজের সোনাইপুল বাজারে নির্মানাধীন ব্রীজের কাজ পরিদর্শন করেন তিনি। এরপর তিনি খাগড়াছড়ির জন সমাবেশে যোগদানের উদ্দেশ্য রওনা দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *