parbattanews bangladesh

উখিয়ায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে খেলোয়াড়সহ ২০ শিক্ষার্থী আহত

উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ার সোনার পাড়া উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় সন্ত্রাসী হামলায় পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলোয়াড়সহ ২০জন ছাত্র আহত হয়েছে।

বুধবার দুপুরে ত্রি-মূখি হামলার এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হচ্ছে পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাগর (৭ম শ্রেণী) আরমান (১০ম শ্রেণী) বাবুল (১০ম শ্রেণী) সিফাত (১০ম শ্রেণী) মো. আরমান (৯ম শ্রেণী) আমিন (৯ম শ্রেণী) আনোয়ার (১০ম শ্রেণী) এ সময় ক্রীড়া শিক্ষক কায়ছার উদ্দিন চৌধুরী (৩০) ও কবির আহমদ (২৯) সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়। তৎমধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় ৩জন শিক্ষার্থীদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ দিকে এ ধরণের ন্যাক্কার জনক সন্ত্রাসী হামলার তাৎক্ষনিক প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কোর্টবাজার-সোনার পাড়া সড়কে অবরোধ করে। বিক্ষোভ প্রদর্শন কালে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, সোনার পাড়া মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও বহিরাগত সন্ত্রাসীরা বিনা উস্কানিতে লোহার রড, লাঠি দিয়ে দফায় দফায় পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলোয়াড় ও শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালিয়ে রক্তাত্ব করে। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যান খাইরুল আলম চৌধুরী, পরিচালনা কমিটির সদস্যগণ, প্রধান শিক্ষক ও পুলিশ প্রশাসন ঘটনাস্থলে এসে দোষীদেরকে সনাক্ত করে বিচারের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়।

শিক্ষার্থীরা জানান, ৪৩তম জাতীয় স্কুল মাদ্রাসা ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে সোনার পাড়া উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠে খেলতে যান পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় বনাম সোনার পাড়া দাখিল মাদ্রসার মধ্যকার খেলায় প্রথমার্ধে পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যলয় ২-০ গোলে এগিয়ে যায়। পরে উভয় দল ২-২ গোলে সমতায় আসলে পেলান্টির নির্দেশ দেয় রেফারি। ওই পেলান্টির শর্ট নিয়ে দু’দলের মধ্যে বিতর্ক হলে সোনার পাড়ার শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও বহিরাগত সন্ত্রাসীরা পর পর ৩ দফা সন্ত্রাসী হামলা চালায় পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলোয়াড়, শিক্ষার্থী  এবং শিক্ষকদের উপর।

পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিমুল এহসান মানিক এ ধরনের ন্যাক্কার জনক ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেন, বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রায়হানুল ইসলাম মিয়াসহ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়।