উখিয়ায় নতুন উদ্ভাবিত বিটি বেগুন চাষে অধিক ফলন, চাষীদের মুখে হাসি


Pic Ukhiya 22-04-2017 (1) copy

উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ায় নতুন জাতের উদ্ভাবিত বারি বিটি বেগুন চাষ করে অধিক ফলন উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছে চাষীরা। ফলন ছিদ্রকারী পোকা মুক্ত বিটি বেগুনের পরীক্ষামূলক চাষ করে ফলন ভাল হওয়ায় চাষীদের মুখে হাঁসি ফুটেছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, কৃষি গবেষণা ইনস্টিউটের বিষেজ্ঞগণ ব্যাপক গবেষণা চালিয়ে নতুন জাতের বারি বিটি বেগুন উদ্ভাবন করা হয়। মূলত পোকা মাকড়ের হাত থেকে রক্ষা ও কীটনাশক ব্যবহার না করে বিটি বেগুন চাষ করা সম্ভব। গবেষণঅয় দেখা যায় ওই নতুন জাতের বেগুন চাষে ফল ছিদ্রকারী পোকা আক্রমন করতে পারে না।

এদিকে উখিয়ার রত্নাপালং ইউনিয়নের ভালুকিয়া থিমছড়ি গ্রামের চাষী চলতি রবিমৌসুমে নতুন জাতের উদ্ভাবিত বিটি বেগুন চাষ করেছে। পরীক্ষামূলক ৬০ বিঘা জায়গায় তিনি চাষ করে দ্বিগুন ফলন উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছে।

চাষী হারুন জানান, উখিয়া কৃষি বিভাগের পরামর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে তিনি নতুন জাতের চাষ করে বেশ সফল হয়। তিনি আরও বলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম ও অন্যান্য উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ রোপন পদ্ধতি, পরিচর্যা, রোগ বালাইয় প্রতিরোধ, ফলন উৎপাদন বিষয়ে হাতে কলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করেছেন। এছাড়াও বিনামূলে সার, বীজসহ অন্যান্য কৃষি উপকরণ সামগ্রী প্রদান করেছে।

কক্সবাজার কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক আকম শাহরিয়ার বলেন, নতুন উদ্ভাবিত বারি বিটি বেগুন চাষে কোন প্রকার পোকা মাকড় আক্রমণ করতে পারবে না। কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউ গবেষকগণ পোকামাকড় বিরোধী এক প্রকার জিন নতুন বেগুন জাতে সংযুক্ত করায় ওই জাত চাষীদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

উখিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম নতুন জাতের বিটি বেগুন পরীক্ষামূলক ভাবে চাষ করে ব্যাপক সফলতা এসেছে। বিশেষ করে ফল ছিদ্রকারী পোকার আক্রমন করতে পারবে না এ চাষে। ফলে রোগ প্রতিরোধে কীটনাশক যেমনি প্রয়োজন হবে না তেমনি ভাবে চাষীদের অর্থ ও সময় সাশ্রয় হবে।

এদিকে গত সোমবার নতুন জাতের বিটি বেগুন চাষের ফলন উৎপাদন প্রদর্শনী উপলক্ষে কৃষক মাঠ দিবস ভালুকিয়া থিমছড়ি এলাকায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। চাষী হাজী মোহাম্মদ আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাঠ দিবসে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম। এসময় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ও স্থানীয় কৃষক, কৃষানীগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বক্তারা অধিক ফলন উৎপাদন ও অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হওয়ার জন্য নতুন জাতের উদ্ভাবিত বিটি বেগুন চাষ করার জন্য চাষীদেরকে উদ্বুদ্ধ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *